মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের সেরা দশজনের দুজন বিজয়ী বিবাহিতা

মিস ওয়ার্ল্ড এর বাংলাদেশ অডিশনে এর মুকুট অর্জন করলেন জান্নাতুন নাঈম এভ্রিল (Jannatul Nayeem) । কিন্তু পরে জানা যায়, তিনি ২৩ বছর বয়সে বিবাহ করেছিলেন। কিন্তু তিনি জানিয়েছেন, বিয়ের সময়ে তার বয়স ছিল ১৬ এবং তিনি এ বিয়ে মেনে নিতে পারেন নি। তাই বিয়ের পরের দিন চলে আসেন এবং ঢাকায় চলে আসেন। অথচ মিস ওয়ার্ল্ডে রেজিস্ট্রেশন করার সময়ে তিনি তার বয়স লিখেছেন ২৭। সুতরাং চার বছর আগে বিয়ের সময়ে তার বয়স ছিল ২৩। তথ্য গোপন করার অভিযোগে তার মুকুট ছিনিয়ে নেয়া হয়। অন্যদিকে বিচারকগণ জানিয়েছেন, জান্নাতুন নাঈম তাদের দেয়া নম্বরে প্রথম ৩ জনের মাঝে ছিলেন না।

এদিকে সেকেন্ড রানার আপ রুকাইয়া জাহান চমকও বিবাহিতা। অনুসন্ধানে এমনটাই জানা গিয়েছে। অন্তর শোবিজ কর্তৃপক্ষ চমকের বিয়ের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তাদের বিয়ের ছবিও পাওয়া গিয়েছে। হিমিও বিবাহিতা, এমন একটা গুঞ্জন উঠেছে। তবে এখন পর্যন্ত এর সত্যতা জানা যায় নি।

পুরো আয়োজন নিয়ে অন্তর শোবীজ এর চেয়ারম্যান স্বপন চৌধুরী জানিয়েছেন, তিনি আয়োজন নিয়ে অত্যন্ত সন্তুষ্ট। তিনি এ আয়োজনকে অত্যন্ত সফল হিসাবে দাবী করেছেন। কিন্তু দর্শকরা জানিয়েছেন, আয়োজন ছিল অত্যন্ত নিম্নমানের। অনুষ্ঠানটি NTV সম্প্রচার করেছে। NTV এর কাজ ছিল অত্যন্ত নিম্ন মানের। ক্যামেরা শেক, স্বল্প ও নিম্ন মানের লাইট ব্যবহার, অপরিষ্কার সাউন্ড সিস্টেম ইত্যাদি সমস্যা ছিল সম্প্রচারে। এ ছাড়া হোস্ট ডি জে সনিকা’র বাচনভঙ্গি নিয়েও সমালোচনা হয়েছে, সমালোচনা হয়েছে তার ড্রেস নিয়েও। অডিশনের
কতিপয় বিচারকদের আচরণ, কথা বলার ধরণ নিয়েও প্রচুর সমালোচনা হয়েছে। অডিশন রাউন্ডের সময়ে বেশ কয়েকজন বিচারক প্রতিযোগীদের সাথে খুব বাজে ব্যবহার করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সালমান মুক্তাদীরও এ বিষয়গুলো নিয়ে তার অসন্তোষের কথা জানিয়েছেন। কমেডিয়ান আল মামনুন জানিয়েছেন, পুরো আয়োজন ছিল অত্যন্ত নিম্নমানের। তিনি বেশ হতাশ হয়েছেন এরকম আয়োজন দেখে। পরিচালক পান্থ রহমান জানিয়েছেন, অনুষ্ঠান এর পরিচালক তার শতভাগ দিতে পারেন নি। যদি তিনি তার মেধার দশ ভাগঅ ব্যয় করতেন, তাহলেও এর চেয়ে অনেক ভাল আয়োজন করা সম্ভব হত।

ফেসবুকে ছড়ানো হচ্ছে ধর্মীয় উস্কানী

ফেসবুকে হিন্দু ধর্মের ভুয়া আইডি তৈরি করে ইসলাম ধর্মকে অবমাননা করে ধর্মীয় উস্কানীমূলক পোস্ট ছড়িয়ে দেয়া হচ্ছে। “Bangladeshi Teenagers” নামের একটি গ্রুপে এরকম প্রচুর পোস্ট দেয়া হচ্ছে। এ ছাড়া ছবি এডিট করে ভুয়া ছবিও তৈরি করা হচ্ছে। তবে সাধারণ মানুষ সহজেই বুঝতে পারবে না, এসকল ছবি মিথ্যা।

আশঙ্কা করা হচ্ছে এসকল পোস্টের কারণে যে কোন মুহুর্তে দাঙ্গা লেগে যেতে পারে। পোস্টগুলোতে প্রচুর হিংসামূলক মন্তব্যও দেখা যাচ্ছে। অধিকাংশ পোস্টই করা হচ্ছে বাংলা ভাষায়।

ধর্মের প্রতি অন্ধ ভালবাসা থেকে কিছু কিছু মানুষ আবার হিন্দু ধর্ম অবমাননা করে পোস্টও দিচ্ছে। অনেকে আবার ছবিও এডিট করে প্রকাশ করছে।

মুফতি আল হাসান জানিয়েছেন, এসকল জিনিসের প্রতি খেয়াল না করাই ভাল। বরং আমাদের কর্তব্য, তাদের হিদায়াতের জন্য দুয়া করা। আর আল্লাহ ক্ষমাশীল।

গ্রুপটির এডমিন Nhung Nguyễn Hồng এবং Thuy Le Thi। এডমিনদের প্রোফাইলের সবকিছুই থাই ভাষায় লেখা এবং ভুয়া ছবি ব্যবহার করা হয়েছে।

লাস ভেগাসে কনসার্টে খ্রিস্টান সন্ত্রাসী হামলায় নিহত ৬০

যুক্তরাষ্ট্রের লাস ভেগাসে একটি কনসার্টে খ্রিস্টান সন্ত্রাসী হামলায় নিহত হয়েছে ৬০ জন ব্যক্তি। সন্ত্রাসী স্টিফেন প্যাডক এ হামলা চালিয়েছেন একটি হোটেলের কক্ষ থেকে এলোপাতারি গুলি এর মাধ্যমে। পুলিশ তাকে গ্রেফতারের আগেই তিনি আত্মহত্যা করেন। সন্ত্রাসী স্টিফেন প্যাডক এর বয়স প্রায় ৬৪। কয়েকজন ব্যক্তি জানইয়েছেন, কনসার্টটি প্রায় শেষের দিকে ছিল। সংগীতশিল্পী জ্যাসন আলদিয়ান যখন গান পরিবেশন করছিলেন তখনই আতর্কিত গুলি শুরু হয়। এরপরে লোকজন ছুটাছুটি শুরু করেন। এ ঘটনার পর থেকে সেখানে আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। সন্ত্রাসী মান্দালয় বে হোটেলের ৩৩ তলা থেকে গুলি চালিয়েছে।

গত এক বছরে আমেরিকায় এ ধরণের এটি ৩য় হামলা। ৩য় এ হামলার পরে যুক্তরাষ্ট্র ত্যাগ করেছে অনেক বিদেশী নাগরিক। বার, কনসার্ট এসকল স্থানে এখন লোকজন যেতে সাহস পাচ্ছে না। এ হামলার পরে যুক্তরাষ্ট্রে প্রায় ১৫ টি কনসার্ট বাতিল হয়েছে। অনেকেই বাতিল করেছে যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণ। যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন বিমান বন্দর অনেকটাই ফাকা ছিল গতকাল।

আলোকচিত্রি ডঃ হাসান জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্র এখন একটি ঝুকিপুর্ণ দেশ। সরকারের উচিৎ, অবিলম্বে যুক্তরাষ্ট্র থেকে সকল বাংলাদেশীদের ফিরিয়ে আনা।

বৌদ্ধ সন্ত্রাসী হামলায় নিহত সহস্র নিরীহ মুসলিম দেশ ছেড়েছেন দশ লক্ষ সাধারণ মুসলিম

মায়ানমারে বৌদ্ধ সন্ত্রাসী হামলায় নিহত হয়েছে কয়েক সহস্র সাধারণ মুসলিম। মায়নামার সামরিক জান্তা এ গণহত্যা ঘটিয়েছে আর তাদের এ গণহত্যায় সমর্থন দিয়েছে মায়ান্মার সরকার প্রধান আং সান সুচি। ১৯৯১ সালে তাকে নোবেল পুরস্কার দেয়া হয় শান্তির জন্য।

মুসলিম

বৌদ্ধ সন্ত্রাসী হামলা থেকে বাচতে প্রায় দশ লক্ষ সাধারণ মুসলিম বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে শরনার্থি হিসাবে। বর্তমানে তারা মানবেতর জীবন যাপন করছে। তবে বিভিন্ন মুসলিম দেশে থেকে পাঠানো হয়েছে ত্রান। তবে দশ লক্ষ মানুষের জন্য তা পর্যাপ্ত নয়। এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি ত্রাণ এসেছে সৌদি আরব থেকে। তবে ভারত সরকার কিছু ত্রাণ পাঠিয়েছে, কিন্তু ভারত মায়ানমার সামরিক জান্তাকেই সমর্থন জানিয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে এক আবেগঘন ভাষণের মাধ্যমে বিশ্ববাসীর সামনে তুলে ধরেছেন তাদের বর্তমান অবস্থা। এ সময়ে তিনি কেঁদে ফেলেন।

নারী আরোহীকে উত্যক্ত করছে পাঠাও এর বাইকার

সোনিয়া (ছদ্ম নাম) পাঠাও এপস এ বাইক খুজলেন। ফাহিম (সুজন) নামে একজন বাইকার তাকে রাইড দিলেন। কিন্তু এর পর থেকেই ওই বাইকার তাকে বারবার হোইয়াটস এপে করে বিরক্ত করতে থাকে। এরপরে হোইয়াটস এপে তাকে ব্লক করলে কয়েকবার ফোন করার পরে ওই নারী যাত্রি তার নাম্বার ব্লক করে দেয়। এরপরে তিনি অন্য নাম্বার থেকে তাকে আবারও ফোন করে উত্যক্ত করে।

pathao

ওই নারী যাত্রি প্রেস বাংলাদেশকে বিস্তারিত জানান এবং হোইয়াটস এপ এর আলাপচারিতার একটি স্ক্রিনশট প্রদান করেন। ওই যাত্রী পাঠাওকে বিষয়টি অভিহিত করেছে এবং তিনি আশা করেন, পাঠাও দ্রুত ব্যব্যস্থা নেবে অভিযুক্ত বাইকারের বিরুদ্ধে এবং পাঠাও সুনামের সাথে তাদের ব্যবসা পরিচালনা করবে।

নির্মাণাধীন ভবন থেকে ইট পরে ইউডা ছাত্র আখিদুল কোমায়

student
আখিদুল ইসলাম

ইউনিভার্সিটি অব ডেভেলপমেন্ট অলটারনেটিভের (ইউডা) চারুকলা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র মো. আখিদুল ইসলাম মোহাম্মদপুরে মোহাম্মদীয়া হাউজিং এলাকায় নির্মাণাধীন একটি ভবন এর সামনের রাস্তা দিয়ে হেটে যাবার সময়ে তার মাথায় একটি ইট পড়ে এবং ঘটনাস্থলে তিনি অজ্ঞ্যান হয়ে পরেন। এর পরে পথচারীরা তাকে দ্রুত পঙ্গু হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে তাকে নেয়া ঢাকা মেডিকেল কলেজে। এরপরে অস্ত্রপচারের জন্য তাকে নেয়া হয় স্কয়ার হাসপাতালে। অস্ত্রপচার শেষ করে তাকে আই সি ইউতে নেয়া হয়। তবে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তার অবস্থা সংকটাপন্ন এবং ৭২ ঘন্টা অতিবাহিত না হলে কিছুই বলা যাচ্ছে না।

ওই ভবনটি মোহাম্মদীয়া হাউজিংয়ের ৭ নম্বর রোডের ১/বি নম্বর বাসা। বাসার মালিক জানিয়েছেন বিয়ে এর প্যান্ডেল সাজানোর কাজ চলছিল এবং এ সময়ে অসতর্কভাবে একটি ইট নিচে পরে যায়। ভবন মালিক মোশাররফ হোসেন ও তাঁর ছেলেকে আটক করে থানায় আনা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আখিদুল এর ভগ্নিপতি প্রচ্ছদশিল্পী মোস্তাফিজ কারিগর মোহাম্মাদপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। মামলার প্রস্তুতি চলছে। আহত শিক্ষার্থীর স্বজনেরা দোষীদের শাস্তি ও উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন।

সরকারী দরপত্র

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সীমানা প্রাচীরে ছোট খাটো একটি সংস্কারের কাজ হবে। দরপত্র দেয়ার আগে ৩জন ঠিকাদার মাপঝোক করতে এলেন।

সিলেটের ঠিকাদার মাপঝোক করে বললেন- মালসামানা ৪লাখ, মিস্ত্রী আর নির্মাণ খরচ ৪লাখ আর লাভ ২লাখ মিলিয়ে ১০লাখে পারবো।

বরিশালের ঠিকাদার মাপঝোক করে বললেন-মালসামানা ৩লাখ, মিস্ত্রী আর নির্মাণ খরচ ৩লাখ আর লাভ ১লাখ মিলিয়ে ৭লাখে পারবো।

নোয়াখালীর ঠিকাদার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সুপারভাইজারকে সাইডে নিয়ে বললেন-আমি নিবো ২কোটি৭লক্ষ টাকা

সুপারভাইজার বললো- আপনি কোন মাপঝোক না করে এই বাজেট কিভাবে দেন?

নোয়াখালীর ঠিকাদার উত্তর দিলেন- কাজটা আমারে পাওয়ায়ে দিলে আপনারে দিমু ১কোটি, আমি রাখমু ১কোটি আর বরিশাইল্যারে কাজটা আউটসোর্স কইরা দিয়া দিমু। রাজি?

হাবিপ্রবিতে ছাত্রীর যৌন হয়রানি: ব্যবস্থা নেয়া হয়নি প্রমাণ থাকার পরেও

দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগ এর শিক্ষক দীপক কুমার সরকারের বিরুদ্ধে দুই ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগের সত্যতা প্রমাণের পরেও কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে দুই ছাত্রী ওই শিক্ষকের অশালীন প্রস্তাব প্রত্যাখান করে সোশ্যাল সায়েন্স অ্যান্ড হিউমিনিটিস অনুষদের ডিন ফাহিমা খানমের কাছে লিখিত অভিযোগ করেন। ফাহিমা খানম অভিযোগটি একই বছরের ২৬ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারকে অবহিত করলে কর্তৃপক্ষ ফাহিমা খানমকে চেয়ারম্যান করে পাঁচ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে। তদন্ত কমিটির সদস্য প্রক্টর এটিএম শফিকুল ইসলাম বলেন, “বিষয়টি তদন্ত করে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে এবং এ বছরের মার্চ মাসে তদন্ত প্রতিবেদন ও সুপারিশ কর্তৃপক্ষকের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।”

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার সাইফুল আলম বলেন, “আমি ১৯ মে এখানে যোগদান করেছি। ছাত্রীকে যৌন হয়রানির বিষয়টি শুনেছি, কিন্তু এ সংক্রান্ত কোনো ফাইল আমার কাছে নেই।”

কিন্তু তদন্ত প্রতিবেদন ধামাচাপা দেওয়ার আশঙ্কা করে হতাশায় ভুগছেন ওই দুই ছাত্রী। এ অভিযোগ ও তদন্ত বিষয়ে জানতে চাইলে অভিজুক্ত দীপক কুমার সরকার এবিষয়ে তার কোনো বক্তব্য নেই বলে জানান।

পিৎজা হাটকে এক লাখ টাকা জরিমানা

pizza

পুলিশের ভ্রাম্যমাণ আদালত পিৎজা হাট এর বনানী শাখাকে এক লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এ অভিযান এ ছিলেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মশিউর রহমান। অত্যন্ত নিম্নমানের এবং মেয়াদউত্তীর্ণ উপাদান দিয়ে তৈরি করা হচ্ছিল অত্যন্ত দামী এ সকল খাবার। এ ছাড়াও অনুমতি না নিয়ে তাদের সস এর উপরে ব্যবহার করা হয়েছিল বি এস টি আই এর লোগো।