ভারতে গো মাংস খাওয়ার কারণে মুসলিম মহিলাকে গণধর্ষণ করল হিন্দু সম্প্রদায়

এক নারীকে গণধর্ষণ করল হিন্দু সম্প্রদায় এর লোকজন। ভারত এর মেওয়াত এলাকায় এই লোমহর্ষক ঘটনাটি গটে। এর কারণ ঐ নারী গরু মাংস খেয়েছে। শুধু গণধর্ষণ করেই তারা ক্ষান্ত হয়নি। তার ১৪ বছরের ভাইকেও আহত করেছে। এ সময়ে তাদের বাচাতে এগিয়ে আসেন তার বৃদ্ধ চাচা। এতে ঐ নারীর চাচাকে হত্যা করে তারা। প্রথমে পুলিশ কোন মামলা নিতে চায় নি। পরে অন্যান্য মুসলিমদের চাপের মুখে যৌন হয়রানির মামলা দাখিল করতে চায়, কিন্তু শেষ পর্যন্ত ক্রমাগত চাপের মুখে হত্যা মামলা নেয় পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশ চারজনকে গ্রেফতার করেছে। এ বর্বর সংবাদটি প্রথমে প্রকাশ করে ব্রিটিশ পত্রিকা ইনডেপেনডেন্ট

India Map

এর আগেও ভারতে গো মাংস খাওয়ার কারণে অনেক মহিলাকে গণধর্ষণ করা হয়েছে। কিন্তু ভারতীয় প্রশাসন এ ব্যাপারে বরাবরই নীরব থেকে এসেছে। ভারতে গরুকে হিন্দু ধর্মের অনুসারীরা পুজা ও ভক্তি করেন। কিন্তু ইসলাম ধর্মমতে একজন মানুষ গোমাংস খেতেই পারে। ধর্মনিরপেক্ষ রাস্ট্র হিসাবে ভারতে সকল ধর্মের লোকজন এর সমান অধিকার রয়েছে নিজ নিজ ধর্ম পালন করার।

২০১৬ সালে পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি গো মাংস রপ্তানি করেছে ভারত। ভারত এর পরেই রয়েছে ব্রাজিল ও অস্ট্রেলিয়া। যে দেশে আইন করে গরু হত্যা নিষিদ্ধ করা হয়েছে, সেদেশ সবচেয়ে বেশি গোমাংস রপ্তানি করে, এমন বিচিত্র পরিসংখ্যান হয়ত খুব দুর্লভ।

Press Bangladesh

নববর্ষের রাতে ভারতে যৌন হামলার ছড়াছড়ি

প্রতি বছরের ন্যায় এবারও ভারতে ঘটা করে পালিত হয়েছে ইংরেজি নববর্ষ। লোকজন নানাভাবে এ রাতটি উদযাপন করেছে। তবে মাদক ও নারী নির্যাতন এর ঘটনা ঘটেছে প্রচুর। আশঙ্কাজনকভাবে ঘটেছে নারী নির্যাতন এর ঘটনা। এরকমই একজন আলোকচিত্রী চৈতালি ওয়ানসিক। এই তরুণী জানিয়েছেন, দুজন লোক তাকে শ্লীলতাহানি করার চেস্টা করলে তিনিও তাদের লাথি মারতে শুরু করেন। এসময়ে পাশেই পুলিশ ছিল, কিন্তু তারা কেউই এগিয়ে আসে নি। পরে কয়েকজন এগিয়ে এলে তারা চলে যায়।

কল্পনা পাল, যিনি পেশায় একজন সাংবাদিক, তিনি জানিয়েছেন, সংবাদ সংগ্রহের জন্য তিনি একটি বারের পেছনে যান, সেখানে কয়েকজন লোক মাতাল হয়ে বসে ছিল, তাদের মধ্যে থেকে একজন এগিয়ে এসে তাকে জাপটে ধরে। পরে তার ক্যামেরা মান মাধব তাকে মুক্ত করেন। কল্পনা পাল এ ঘটনায় বেশ আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন।

দিল্লি পুলিশ জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত ২৫৬ টি অভিযোগ এসেছে। তারা সিসিটিভি ফুটেজ এবং সাংবাদিকদের ভিডিও ফুটেজ দেখে অপরাধীদের খুজে বের করার চেস্টা করছেন।

মুম্বাই পুলিশের কাছে ৮৪৫ টি অভিযোগ করা হয়েছে। তারা একটি তদন্ত দল গঠন করেছে, যাতে এসকল অপরাধীদের দ্রুত গ্রেফতার করা যায়।

কলকাতা পুলিশের কাছে ৬৭৯ টি অভিযোগ আনা হয়েছে শ্লীলতাহানির। এর মাঝে রয়েছে একজন পতিতা, নন্দিনী দেবী। নন্দিনী দেবী পুলিশকে জানিয়েছেন, একজন লোক তাকে জোর করে তার সাথে যৌন কাজে লিপ্ত হয়েছে। তিনি পেশায় একজন পতিতা হলেও তারও রয়েছে অধিকার। আর এ কারণেই কলকাতা পুলিশ তার এ অভিযোগ আমলে নিয়েছে। নন্দিনী দেবী আরও জানিয়েছেন, তিনি ওই লোককে চেনেন, তার নাম অর্জুন ঠাকুর। তিনি এইচ আই ভি পজিটিভ। কলকাতা পুলিশের নির্দেশে নন্দিনী দেবীর শারীরিক পরীক্ষাও করা হচ্ছে এবং চিকিৎসকদের আদেশ দেয়া হয়েছে, তার সঠিক চিকিৎসা করতে।

বিগত বছরগুলোতে এত অভিযোগ কখনও আসে নি। তবে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে বলা হয়েছে, শ্লীলতাহানির ঘটনা আরও অনেক বেশি, অনেকেই পুলিশের কাছে অভিযোগ করে নি।

সমাজবাদী দলের বিধায়ক আবু আজমি ও কর্ণাটকের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জি পরমেশ্বর বলেছেন, নারীদের ছোট পোশাকের কারণেই এমনটা হয়েছে। তাদের এ মন্তব্যের পরে, তাদের পদত্যাগের দাবী উঠেছে বিভিন্ন মহল থেকে। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমেও সাধারণ জনগণও তাদের এ মন্তব্যের তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।

পাকিস্তানেও এ বছর বেশ ঘটা করেই উদযাপন করা হয়েছে থার্টি ফাস্ট, কিন্তু সেখানে কোন যৌন হামলার ঘটনা ঘটেনি বলে জানিয়েছে ইসলামাবাদ পুলিশ।

ইউ আই ইউ শিক্ষক ফয়সাল কবির ও তার স্ত্রী হুমাইরা গুরুতর আহত

বাংলাদেশ এর স্বনামধন্য ইউনাইটেড আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয় এর কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ এর সহযোগী অধ্যাপক ফয়সাল কবির ও তার স্ত্রী হুমাইরা ফ্লোরিডার আলাচুয়া শহরে একটি সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়ে হাঁসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। এ ছাড়াও আরও চারজন গুরুতর আহত হয়ে হাঁসপাতালে রয়েছেন। তাদের অবস্থা গুরুতর বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। বুধবার সকাল স্থানীয় সময় রাত ১ঃ৪৫ মিনিটে এ দুর্ঘটনা ঘটে। গাড়ির নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে ফ্লোরিডা পুলিশ। ইটন নামে একজন ব্যক্তি ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছেন।

florida

ভারতের সরকারের আমন্ত্রণে ভারতে বাংলাদেশের প্রতিনিধি দল

President of India
ভারতের সরকারের আমন্ত্রণে প্রেসিডেন্ট ভবনে বাংলাদেশের প্রতিনিধি দল

গিয়েছিলাম, ভারতের সরকারের আমন্ত্রণে বাংলাদেশের প্রতিনিধি হয়ে।

যাত্রা শুরু করি ৪ই ডিসেম্বর সকাল ৮টায়।৪টা রাজ্য ভ্রমণ করি পুলিশ প্রোটকল এ। দিল্লী -আগ্রা-গুজরাট-কলকাতা।১১তারিখ দেশে ফিরি। দেখেছি ও জেনেছি ভারতের ঐতিহ্য ও ইতিহাস। সবসময়ে সাথে ছিল পুলিশ প্রোটকল।

০৪ই ডিসেম্বরঃ দিল্লী মিউজিয়াম ও দিল্লী গেট
০৫ই ডিসেম্বরঃ রেড ফোর্ট, শাহী জামে মসজিদ, বিকেলে প্রেসিডেন্ট ভবনে আমন্ত্রণ, উপস্থিত ছিলেন যুব মন্ত্রি, প্রেসিডেন্ট ভবনে পেয়েছি ভিয়াইপি সংবর্ধনা। দুই দেশের ত্রুন্দের একসাথে কাজ করার আহবান জানান তিনি।
০৬ই ডিসেম্বরঃ আগ্রা গমন ও তাজমহল,আগ্রা ফোর্ট
০৭ই ডিসেম্বরঃ মহত্মা গান্ধির সমাধি, কুতুব মমিনার ও বিকেলে গুজড়াটের উদ্দেশ্য গমন
০৮ই ডিসেম্বরঃ গুজ্রাট ইঞ্জিয়ার ইউনিভারসিটি তে আমন্ত্রণ, সেখানে দুই দেশের সাংস্কৃতিক মিল বন্ধন হয়, আমরা আমাদের দেশের গান, নাচ, কবিতা পরিবেশনা করি, আমিও ছিলাম গানের দলে।
০৯ই ডিসেম্বরঃ মহত্মা গান্ধির আশ্রম ডান্ডি কুঠির এ যাই।
১০ই ডিসেম্বরঃ কলকাতা যাত্রা, ভিক্টোরিয়া পার্ক, ইডেন গার্ডেন ও হাওয়া ব্রিজ।
১১ই ডিসেম্বরঃ কবি গুরু রবি ঠাকুরের বাড়ি, জোড়াসাঁকো রাজবাড়ি দশন,মনে হচ্ছিল চোখের সামনে রবিঠাকুর কে দেখছি।

রাত এ দেশের উদ্দেশ্যে রওনা হই। পুরো টুরে প্রোটকল সহ রাষ্টিয় অথিতির মর্যাদা দেয়া হয়। স্বপ্নের মত ছিল এই ৮দিন। লাল -সবুজ, ভালোবাসার রঙ এর শাড়ি পরেছিলাম প্রেসিডেন্ট এর সাথে সাক্ষাত করতে।লাল-সবুজ আমার অহংকার। বিজয়ের মাসে নিজের দেশের প্রতিনিধি হয়ে যেতে পেরে আমি গর্বিত।

ভালোবাসার বাংলাদেশ। লাল-সবুজ আমার অহংকার।

খুব কড়া শাসনে বড় হয়েছি তাই,ঢাকার বাইরে পরিবার ছাড়া কখনওই যাওয়া হয়নি আমার। তাই এই টুর টা আমার জীবিন্স স্মরণীয়। যে মেয়ে বাড়ির বাইরে একা কোন্দিন পা রাখে নি সে গিয়েছে তার দেশের প্রতিনিধি হয়ে।

-বর্ষা
রেডিও প্রেসেন্টার
University of liberal Arts Bangladesh (ULAB)

সান ফ্রান্সিস্কোর র‍্যাম্পে লাল সবুজ পতাকা

bangladesh flag
প্রিয় লাল সবুজ পতাকা হাতে নিয়ে র‍্যাম্পে হাটছেন ফাহিমা মাহজাবীন চৌধুরী

সান ফ্রান্সিস্কো, র‍্যাম্প, বাংলাদেশের পতাকা!!! এ তিনটি জিনিসকে এবার এক করে ফেলুন। কেমন যেন বিস্ময়কর লাগছে, তাই না? মেলানো যাচ্ছে না কিছুই। কিন্তু এবার এমনটাই হয়েছে। সান ফ্রান্সিস্কো স্টেট ইউনিভার্সিটির একটি র‍্যাম্পে বাংলাদেশের একজন কন্যা হেঁটেছেন, আর তার হাতে ছিল বাংলাদেশের গর্বের প্রতীক, লাল সবুজ পতাকা। আর এ কাজটি করেছেন ফাহিমা মাহজাবীন চৌধুরী। র‍্যাম্পের মূল উদ্দেশ্য ছিল, নারীর ক্ষমতায়ন। কিন্তু তিনি নারীর ক্ষমতায়ন এর সাথে সাথে নিজের দেশকেও তুলে ধরার চেষ্টা করেছেন, বিশ্বের সামনে।

ফাহিমা মাহজাবীন চৌধুরী পড়াশোনা করছেন সান ফ্রান্সিস্কো স্টেট ইউনিভার্সিটিতে। এর আগে তিনি United Nations Youth and Students Association of Bangladesh (UNYSAB) এর সদস্য ছিলেন।

ব্রাজিল ক্লাব ফুটবল দল বহনকারী বিমান বিধ্বস্ত

ব্রাজিল ক্লাব ফুটবল দল বহনকারী বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে কলম্বিয়া সীমান্ত এলাকায়। বিমানটিতে ৭২ জন যাত্রী ছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। দক্ষিন আমেরিকান ক্লাব কাপ এর ফাইনাল ম্যাচ খেলার জন্য বলিভিয়া থেকে বিমানটি যাত্রা করেছিল। ফাইনাল ম্যাচটি স্থগিত করা হয়েছে।

বিস্তারিত আসছে ….

brazil football team

বিদায় ফিদেল কাস্ত্রো

Fidel Castro
ফিদেল কাস্ত্রো

কিউবার বিপ্লবী নেতা ফিদেল কাস্ত্রো আজ ৯০ বছর বয়সে কিউবার একটি হাঁসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। এ ঘটনায় কিউবার জনগণ শোকে ভেঙ্গে পরেছে।

বঙ্গবন্ধুর সাথে দেখার করার পড়ে তিনি মন্তব্য করেছিলেন “আমি হিমালয় দেখিনি কিন্তু শেখ মুজিবকে দেখেছি। ব্যক্তিত্ব এবং সাহসিকতায় তিনিই হিমালয়।”

১৯২৬ সালের আগস্ট এর ১৩ তারিখে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি চেয়েছিলেন গণমানুষের মুক্তি। অংশ নিয়েছিলেন যুদ্ধে, নিজের জীবন বিলিয়ে দিয়েছেন মানুষের অধিকার রক্ষায়। সারা বিশ্বে রয়েছে তার অসংখ্য ভক্ত ও অনুসারী।

donald trump

Congratulations Donald Trump

donald trump
US President Donald Trump

Congratulation Mr. President Donald Trump for winning the US Election 2016

US election 2016

USA Election Result 2016

Bangladeshi Wedding Photographer

Donald Trump
Donald Trump

Donald Trump won the presidency

2016 Primary Election Results

Hillary Clinton

Donald Trump

USA Election 218 electoral votes
57,108,697 votes
276 electoral votes
57,767,675 votes
USA Election poll tracker 47% 51%
Vote Location Chappaqua, New York Manhattan
Survey in Bangladesh 90% 10%
Hillary Clinton
Hillary Clinton
IPA

সউদ আল ফয়সাল এর IPA পুরষ্কার লাভ

Saud Al Faisal
সউদ আল ফয়সাল

২০১৬ সালে International Photography Awards (IPA) পেলেন বাংলাদেশের অত্যন্ত খ্যাতনামা আলোকচিত্রী সউদ আল ফয়সাল। তিনি এডিটোরিয়াল শিশু বিভাগে এ পুরষ্কার লাভ করেন। এডিটোরিয়াল বিভাগে তিনি প্রথম স্থান অধিকার করেন ও শিশু বিভাগে তৃতীয় স্থান অধিকার করেন।

“The Journey” শিরোনামের সাদা কালো ছবিগুলোতে ফুটে উঠেছে ঈদের সময়ে ট্রেনে করে মানুষের গ্রামের বাড়িতে ছুটে যাবার অসাধারণ সব দৃশ্য।

Train
© সউদ আল ফয়সাল

Railway Station
© সউদ আল ফয়সাল

“Bed of no roses” শিরোনামে শিশুদের ছবিগুলো দর্শকদের হৃদয় ছুয়ে যায়। ছবিগুলোতে ফুটে উঠেছে তাদের জীবনের থমকে যাওয়া সময়গুলো। ময়লার মাঝে, কিংবা রাস্তার পাশে তাদের ঘুমিয়ে পড়া।

Children
© সউদ আল ফয়সাল
Snake
© সউদ আল ফয়সাল

বাংলাদেশের খ্যাতনামা ওয়েডিং ফটোগ্রাফার সজীব পাল বলেছেন, “সউদ আল ফয়সাল এর ছবিতে একধরনের আবেদন থাকে যেটি মানুষকে স্পর্শ করে যায়।” তিনি অভিনন্দন ও শুভকামনা জানিয়েছেন IPA পুরষ্কার বিজয়ী এ আলোকচিত্রীকে।

উপস্থাপিকা ও অভিনেত্রী সুমাইয়া সাকী এ ছবিগুলো দেখে বলেছেন, “ছবিগুলো একই সাথে আমাকে ব্যাথিত করেছে এবং প্রেরণা যুগিয়েছে। ছোট এই শিশুগুলো জীবন যুদ্ধের নিষ্ঠুরতার সম্মুখীন হয়েও তার মাঝে একটু প্রশান্তি খুঁজছে।আমরা আমাদের জীবনের ছোট বড় নানা জটিলতায় হতাশ হয়ে পড়ি,মুষড়ে পড়ি। যা ছবিগুলোর বিষয়বস্তুর তুলনায় কিছুই নয়। ছবিগুলো আমার অবচেতন মনকে জাগ্রত করে, আমাক সচেতন করে এবং সাহসী করে।

সউদ আল ফয়সাল, সাদা-কালো ছবি নিয়ে ডিপ্লোমা ডিগ্রি সম্পন্ন করেছেন আলিয়ান্স ফ্রঁসেজ থেকে ১৯৯৬ সালে। তিনি ইতিমধ্যেই অনেকগুলো আন্তর্জাতিক পুরষ্কার অর্জন করেছেন।

-যুবাইর বিন ইকবাল, প্রেস বাংলাদেশ

সুত্রঃ www.photoawards.com

Bangladeshi Wedding Photographer