মহাকাশে বাংলাদেশের প্রথম ন্যানো স্যাটেলাইট

মহাকাশে উৎক্ষেপণ করা হয়েছে বাংলাদেশের প্রথম ন্যানো স্যাটেলাইট “ব্র্যাক অন্বেষা।” মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে ৪ই জুন রোববার বাংলাদেশ সময় ভোর ৩টা ৭ মিনিটে স্যাটেলাইটটির সফল উৎক্ষেপণ করা হয়। এটি স্পেসএক্স ফ্যালকন-৯ রকেটে চড়ে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনের (আইএসএস) উদ্দেশে রওনা হয়েছে। আইএসএসে অবস্থানরত নভোচারীরা ৪৮ ঘন্টার মাঝে বাংলাদেশি স্যাটেলাইটবাহী কার্গো মহাকাশযানটি পেয়ে যাবেন এরপর তাঁরা এটিকে নিদৃস্ট কক্ষপথে পাঠাবেন।
 NASA's Earth Science Satellite

এই কৃত্রিম উপগ্রহের গ্রাউন্ড কন্ট্রোল স্টেশন ঢাকায় অবস্থিত। তাই কক্ষপথে যখনই এটি পৌঁছানোর পরে ঢাকায় বার্তা গ্রহণ শুরু হয়ে যাবে।

এটির নির্মাণকাজে অংশ নিয়েছেন রায়হানা শামস্ ইসলাম, আবদুল্লা হিল কাফি ও মাইসুন ইবনে মনোয়ার। তারা ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তড়িৎ ও ইলেকট্রনিকস প্রকৌশল বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রি সম্পন্ন করেছেন। বর্তমানে তাঁরা জাপানের কিউশু ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির (কিউটেক) স্নাতকোত্তর পর্বের শিক্ষার্থী। ন্যানো স্যাটেলাইট নিয়ে তারা বর্তমানে সেখানে পড়াশোনা করছেন। ব্র্যাক অন্বেষার নির্মাণে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় অর্থায়ন করেছে এবং কিউটেক সকল ধরণের শিক্ষা ও প্রযুক্তি সহায়তা প্রদান করেছে।

বাংলাদেশে র‍্যানসমওয়্যার আক্রমণ

বাংলাদেশে র‍্যানসমওয়্যার Continue reading “বাংলাদেশে র‍্যানসমওয়্যার আক্রমণ”

Official Website of Education Board

মুঠোফোনে যেভাবে জানবেন এসএসসির ফল

Bangladeshi Wedding Photographer

SSC<>1st 3 LETTER OF BOARD<>ROLL<>YEAR, SSC<>MAD<>ROLL<>YEAR, SSC<>TEC<>ROLL<>YEAR

এস এম এস পাঠাতে হবে 16222 নাম্বারে। এর জন্য প্রতি এস এম এসে ২ টাকা ৪৪ পয়াসা চার্জ প্রযোজ্য হবে।

শিক্ষাবোর্ডের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট থেকেও জানা যাবে এস এস সি পরীক্ষার ফলাফল

Official Website of Education Board
www.educationboardresults.gov.bd

Bangladeshi Wedding Photographer

১৫ দিনের প্রশিক্ষণে দক্ষ গেমস ডেভেলপার তৈরির উদ্যোগ! ব্যয় ২৮২ কোটি টাকা

পনের দিনের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সুদক্ষ মোবাইল গেমস ও অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপার তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়। আট হাজার সাতশ পঞ্চাশজন ডেভেলপার তৈরি এবং এক হাজার পঞ্চাশটি অ্যাপ্লিকেশন ও গেমস তৈরির জন্য দুই বছর মেয়াদী এই প্রকল্পের জন্য ব্যয় ধরা হয়েছে ২৮১ কোটি ৯৭ লাখ টাকা। তবে মাত্র পনের দিনের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে একজন ডেভেলপারকে কতটুকু দক্ষ করে তোলা সম্ভব তা নিয়ে প্রশ্ন করা হয়েছে বিভিন্ন মহল থেকে।

তথ্যপ্রযুক্তিবিদ ও সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এত কম সময়ে এটা কখনও সম্ভব নয়। এর আগেও সরকার ছয়শ মোবাইল অ্যাপস তৈরি করার পর রক্ষণাবেক্ষণ করতে পারেনি। প্রযুক্তিবিদ যুবাইর বলেছেন, সরকার এ উদ্যোগ খুবি ভাল, কিন্তু এর বাস্তবায়ন কতটুকু সম্ভব, তা একমাত্র সময় বলে দেবে। এই প্রকল্পের আওতায় অ্যাপসগুলো রাখার জন্য পঞ্চাশ লাখ টাকা দিয়ে একটি অ্যাপস্টোর তৈরির কথা বলা হয়েছে। তবে এর আগেও দেশীয় অ্যাপসস্টোর তৈরি করেছে সরকার, যেটি কোনো কাজেই আসেনি। এতে নতুন করে আবারও পঞ্চাশ লাখ টাকা ব্যয়ে স্টোর তৈরি বিলাসিতা ছাড়া আর কিছু নয় বলে মনে করছে দেশীয় তথ্য প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো।

গুগুল ক্রোম ব্রাউজারে অটো রিফ্রেশ বন্ধ করা

অনেক সময়ে দেখা যায় গুগুল ক্রোম ব্রাউজারে ট্যাব অটো রিফ্রেশ হয়। অনেকক্ষণ যাবত একটি ট্যাব না খুললে এটি হয়। এটা বন্ধ করতে গেলে প্রথমে এড্রেস বারে chrome://flags লিখতে হবে। এরপরে #automatic-tab-discarding অপশনকে Disable করতে হবে। সাধারণত এটা Default থাকে। এরপরে ব্রাউজার বন্ধ করে পুনরায় চালু করলে এ ফিচারটি বন্ধ হয়ে যাবে।

ডিজিটাল ওয়েভ ও বাংলাদেশ – গুগল বিজনেস গ্রুপ

১৮ মার্চ রবিবার গুগল বিজনেস গ্রুপ এর ডিজিটাল ওয়েভ ও বাংলাদেশ শিরোনামে একটি প্রশিক্ষণ কর্মসূচি আয়োজন করা হয় এশিয়া প্যাসিফিক বিশ্ববিদ্যালয়ে। অধিবেশনে মাইন্ড শেয়ার, ডোজি ইন্টারনেট, বুমেরাং ডিজিটাল, মেঘ ডট এনালিটক্স, টেন মিনিট স্কুল, শপ আপ, ই কমার্স এসোসিয়েশন বাংলাদেশ (ই-ক্যাব) এর বক্তাদের সাথে অংশগ্রহণ ও বক্তব্য রাখেন গুগল বিজনেস গ্রুপ এর সার্টিফাইড ওয়েব ট্রেনারগণ। প্রশিক্ষণ কর্মসুচিতে অনলাইন লার্নিং কম্বিনিং এনালিটক্স, ডিসপ্লে নেটওয়ার্ক, বাংলাদেশ এর পরিপ্রেক্ষিতে বানিজ্যক বিশ্লেষণ, গ্রাহকদের কাছে ডিজিটাল পদ্ধতিতে পণ্য পৌঁছানসহ ব্যবসায় আরও বেশি পরিমাণে অনলাইন শপ এর অংশগ্রহণ, ই কমার্স ইন্টারপ্রেনারশীপ, ব্যবসায় আরও ডিজিটাল পদ্ধতিতে ফান্ডীং করার ব্যাপারে আলোকপাত করা হয়। প্রশিক্ষণ কর্মসুচিতে অংশগ্রহণকারী ১২০ জন শিক্ষার্থীদের বিশেষভাবে ডিজিটাল ইন্টারপ্রেনারশীপ হিসাবে আরও বেশি গুগল-প্রজুক্তিসমূহ ব্যবহার করার জন্য অনুপ্রাণিত করা হয়।

গুগল বিজনেস গ্রুপ প্রগতিশীল পেশাদারদের জন্য একটি প্রতিষ্ঠান হিসাবে শুরু থেকেই স্টুডেন্ট কমিউনিটি এবং লোকাল ব্যবসা-প্রতিষ্ঠানগুলোর সামনে ওয়েব এর ব্যবহার এর সফলতা সম্পর্কে অবহিত করতে আগ্রহী।

জিবিজি সোনারগাঁও, গুগল দ্বারা পরিচালিত একটি বিশ্বব্যাপী উদ্যোগ যারা আরো বেশি বেশি ট্রেনিং সেশন, ওয়ার্কশপ ও অনুষ্ঠান আয়োজনের মাধ্যমে তরূন্দের মাঝে ইন্টারপ্রেনারশীপ এবং লিডারশীপ চড়িয়ে দেবার জন্য কাজ করে যাচ্ছে।

মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে গেমস ম্যাসিভ যুদ্ধ ৭১

Massive Games 71
ম্যাসিভ যুদ্ধ ৭১ এর পোস্টার

জাতি গর্ব করতে পারে, এমন একটি ইতিহাসের নাম মুক্তিযুদ্ধ, যেটি হয়েছিল ১৯৭১, পুরো দেশ অংশ নিয়েছিল সেই যুদ্ধে, শহীদ হয়েছিলেন ৩০ লক্ষ্ মানুষ। সম্ভ্রম হারিয়েছিলেন দু লক্ষ নারী। জন্ম হয়েছিল একটি স্বাধীন দেশের। বন্দি হতে হয়েছিল সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি শেখ মুজিবুর রহমানকে।

কিন্তু আমাদের অনেকেরই জন্ম হয় নি ১৯৭১ সালে। আমরা অনেকেই দেখি নি সেই ভয়াল দিনগুলো। মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস পাঠ করার পরে নিজের মনের অজান্তেই চলে আসে। ঈশ আমিও যদি রাইফেল নিয়ে ছুটে যেতে পারতাম, যদি পারতাম গ্রেনেড ছুড়ে শত্রু শিবির উড়িয়ে দিয়ে। তবে সেত আর সম্ভব না। তবে সেই আবহ তৈরি করা হয়েছে একটি গেমসে। যে গেমসে তুলে আনা হয়েছে মুক্তিযুদ্ধের বিশদ ইতিহাস। এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে গেমসটি, জাতে একজন মানুষ জানতে পারবে পুরো যুদ্ধের ইতিহাস। গেমস এর নাম, ম্যাসিভ যুদ্ধ ৭১

গেমসটিতে রয়েছে মোট ২১টি পর্ব। এখানে একজন খেলোয়াড় থাকবেন একজন মুক্তিযুদ্ধের ভুমিকায়। তাকে বাঁচাতে হবে অসহায় মানুষদের, হত্যা করতে হবে পাক সেনাদের। খেলতে হবে থ্রি নট থ্রি রাইফেল নিয়ে।

গেমসটি তৈরি করেছে বাংলাদেশ এর প্রতিষ্ঠান ম্যাসিভ স্টার স্টুডিওজনাব মাহবুব আলম এর তত্তাবধানে তৈরি করা হয়েছে এ গেমসটি। তিনি ম্যাসিভ স্টার স্টুডিও এর সি ই ও।

রঞ্জন রশ্মি

জার্মান চিকিৎসক উইলিয়াম রঞ্জন ১৮৯৫ সালে রঞ্জন রশ্মি আবিষ্কার করেন। এ রশ্মির রেঞ্জ ০.০১ থেকে ১০ ন্যানো মিটার পর্যন্ত হয়ে থাকে।

x ray

রঞ্জন রশ্মির ব্যবহার

  1. রোগীর শরীরের অভ্যন্তরীণ ছবি তোলার জন্য এ রশ্মির ব্যবহার হয়ে থাকে।
  2. কল কারখানা, বিমানবন্দর, ব্যাংক ইত্যাদি গুরুতবপুর্ণ স্থানে ব্যাগ তল্লাশির কাজে ব্যবহৃত হয়ে থাকে।
  3. ফাইন আর্ট ফটোগ্রাফিতে অনেক ফটোগ্রাফার রঞ্জন রশ্মি ব্যবহার করে থাকেন।

বাংলাদেশে মাল্টা ও কমলার গ্রীনিং রোগের জীবানু সনাক্ত

সম্প্রতি একদল বিজ্ঞানী বাংলাদেশে প্রথমবারের মত মাল্টা ও কমলার গ্রীনিং (Citrus Greening) রোগসৃষ্টিকারী ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া সনাক্ত করেছেন। বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদ রোগতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ড. মোঃ রশিদুল ইসলাম-এর তত্ত্বাবধায়নে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বারি) এর গবেষক ও উদ্ভিদ রোগতত্ত্ব বিভাগের এম এস ফেলো মোহাম্মদ মনিরুল হাসান টিপু যৌথভাবে ব্যাকটেরিয়াটি সনাক্ত করেছেন। মাল্টা ও কমলার গ্রীনিং একটি প্রাচীন রোগ বলে অভিহিত। Candidatus Liberibacter asiaticus নামে একটি ব্যাকটেরিয়ার আক্রমনের ফলে মাল্টা ও কমলা গাছে এ রোগটি হয়। এ রোগের প্রধান লক্ষণ হচ্ছে গাছের পাতা হলুদ হয়ে যায়, ফলন কমে যায় এবং পর্যায়ক্রমে গাছ মারা যায়। চারাগাছ আক্রান্ত হলে গাছের বৃদ্ধি ব্যাহত হয় এবং গাছ অকালে মারা যায়। ধারনা করা হত এটি জিংক ও অন্যান্য পুষ্টির অভাবজনিত সমস্যা। ফলে পর্যাপ্ত সার ও পুষ্টি উপাদান সরবরাহ করেও এ সমস্যা সমাধান করা যাচ্ছিল না। এ ব্যাপারে বারি-র উদ্যানতত্ত্ব গবেষণা কেন্দ্রের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ও ‘সাইট্রাস ডেভেলপমেন্ট প্রকল্প’-এর পরিচালক ড. মোঃ আজমতউল্লাহ বলেন যে তিনি প্রায় ২৫ বছর যাবৎ লেবুজাতীয় ফসল মাল্টা ও কমলার উপর গবেষণা করে আসছেন এবং ধারনা করেছিলেন এটি শুধুমাত্র পুষ্টির অভাবজনিত সমস্যা নয়, কোন জীবানুঘটিত কারন হতে পারে। তাই ব্যাকটেরিয়াটির সনাক্তকরণ লেবুজাতীয় ফসলের সুস্থ্য চারা উৎপাদন ও চাষের প্রসারে অন্যতম ভূমিকা রাখবে। সনাক্তকরণের ব্যাপারে গবেষকদল বলেন, ব্যাকটেরিয়াটি সনাক্তকরণ এতটা সহজ ছিলো না কারন ব্যাকটেরিয়াটি কৃত্রিমভাবে গবেষণাগারে চাষ (Culture) করা যায় না। ফলে তারা আধুনিক প্রযুক্তি (Molecular technique)-এর মাধ্যমে মাল্টা ও কমলার রোগাক্রান্ত পাতার মধ্যশিরা (Midrib) থেকে ব্যাকটেরিয়াটির ডিএনএ পৃথক করে পরীক্ষার (Polymerase Chain Reaction, Gel electroporesis) দ্বারা এর অস্তিত্ব প্রমাণ করেন। শতভাগ নিশ্চিত হওয়ার জন্য তারা জীবানুটির জীন সিকুয়েন্সিং করেন এবং অন্যান্য দেশে প্রাপ্ত গ্রীনিং-এর জীবানুর সাথে সাদৃশ্য পান।

সূত্র অনুযায়ী বাংলাদেশে প্রায় ২৮০০ হেক্টরেরও বেশি জমিতে দেড় লক্ষ টনেরও অধিক লেবুজাতীয় ফসল উৎপাদিত হয়। সাইট্রাস ডেভেলপমেন্ট প্রকল্পের আওতায় ২০২১ সালের মধ্যে আরও ৮০০ হেক্টর জমিতে লেবুজাতীয় ফসল উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করা হয় যা বিদেশ থেকে মাল্টা ও কমলার আমদানী কমিয়ে দেশের চাহিদা মেটাতে সাহায্য করবে। গবেষকদলের এ সাফল্য প্রকল্পের উদ্দেশ্য বাস্তবায়নে এক অনন্য অবদান রাখবে। জানতে চাওয়া হলে গবেষণা তত্ত্বাবধায়ক ড. রশিদুল বলেন, গ্রীনিং-এর জীবানু, এর সংক্রামনের বাহক এবং এর ব্যবস্থাপনা নিয়ে আরও গবেষণা হওয়া প্রয়োজন যা মাল্টা ও কমলার দেশীয় উৎপাদন বাড়াতে সহায়তা করবে এবং আমদানী নির্ভরশীলতা কমিয়ে আনবে। গবেষণা সম্পর্কে মোহাম্মদ মনিরুল হাসান টিপু বলেন, তিনি লেবুজাতীয় ফসলের মলিকুলার পর্যায়ে গবেষণা করতে আগ্রহী এবং এ সাফল্য তাকে আরো উচ্চতর ডিগ্রি অর্জনে প্রেরণা যোগাবে।
-প্রেস বাংলাদেশ

মানবতার জন্য এপস প্রতিযোগিতায় ইউ আই ইউ এর সাফল্য

ইন্সটিটিউট অব ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (আইইইই) বাংলাদেশ সেকশন আয়োজন করছে মানবতার জন্য মোবাইল বা কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন তৈরি ও ধারণা জমা দেওয়ার একটি প্রতিযোগিতা। ১২ আগস্ট শুরু হয়েছিল এ প্রতিযোগিতা। ভেন্যু হিসাবে ছিল ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। প্রতিযোগিতা হয়েছিল দুটি ক্যাটেগরিতে। প্রথম ধারনা প্রদান এবং দ্বিতীয় ধারনা বাস্তবায়ন।

৮-৯ সেপ্টেম্বার মাসে চুরান্ত পর্ব অনুষ্ঠিত হবে ভারতের তামিলনাড়ুতে।

IEEE

ইউ আই ইউ এর “Team Tesseract” এতে অংশ নিয়ে অর্জন করে প্রথম রানার্স আপ হবার গৌরব। তারা “ধারনা প্রদান” ক্যাটেগরিতে অংশ নিয়েছিলেন। এ দলের সদস্য ছিলেন, হাসান সনেট, আমিত ঘোষ ও আসিফ মাহবুব।

প্রথম স্থান অধিকার করে বুয়েট এবং তৃতীয় স্থান অধিকার করে চুয়েট

Bangladeshi Wedding Photographer