পোস্ট গ্রাজুয়েট ইন সাংবাদিকতা

বাংলাদেশ ছোট্ট একটি দেশ, কিন্তু এদেশে সংবাদপত্রের অভাব নেই, অভাব নেই টিভি চ্যানেল এর। আর প্রায় প্রতিদিনই কোন না কোন অনলাইন নিউজ পোর্টাল চালু হচ্ছে। কিন্তু দেশে যোগ্য সাংবাদিক কজন আছে? কজন আছেন, যিনি সাংবাদিকতায় পড়াশোনা করেছেন? আর এ কারণেই হয়ত –

: ভাই ঘটনা শুনছেন?
: হুম, বাংলাদেশ ৮ উইকেটে জিতছে
: আরে না ভাই, সেটা না…….
: তো কি? ২৮ জন সমকামী ধরা পড়ছে….
: ধুর, এসব না…..
: তো?
: কোন এক ডাক্তার আব্দুল্লাহ ভুল চিকিৎসা দিয়ে রোগী মেরে ফেলছে
: কোন আব্দুল্লাহ?
: বিএসএমইউ নাকি কোথাকার কি জানি….
: আচ্ছা যাই হোক, ভুল চিকিৎসা তুই কেমনে বুঝলি?
: কেন ভাই! অমুক পেপারে দেখছি…..
: ও, তাই…….!
: যাক ভাই। এসব বাদ দেন। আমার আম্মু কয়েকদিন ধরে অসুস্থ। কোন ডাক্তার দেখালে ভাল হবে?
: অমুক পত্রিকার অফিসে ফোন দেয়…..
: কেন ভাই? ওখানে ফোন দিয়ে কি হবে?
: ফোন দিয়ে জিজ্ঞেস কর, যে রিপোর্টার ‘ভুল চিকিৎসা’ বলে নিউজ করেছে সে কোথায় চেম্বার করে। একটা সিরিয়াল দিতে বল…..
: ভাই মজা নিচ্ছেন নাকি! ও তো সাংবাদিক। ও কেমনে চিকিৎসা দিবে?
: কেন? কিছুক্ষণ আগে তুই না বললি, ও আব্দুল্লাহ স্যারের চিকিৎসার ভুল ধরেছে। তাহলে সে নিশ্চয় মেডিকেল সাইন্স ডাক্তারদের চেয়ে ভাল জানে। নাহয়, দেশের সব ডাক্তার বলতেছে চিকিৎসা ভুল ছিল না, সেখানে সে কেমনে বলল চিকিৎসা ভুল? তোর মাকে ওর কাছে নিয়ে যা, ভাল চিকিৎসা পাবি!
: না ভাই……আসলে

দশে মিলে করি কাজ, হারি জিতি নাহি লাজ

একবার সংখ্যা ৯, ৮- কে জোরে
এক থাপ্পড় মারল
তখন কাঁদতে কাঁদতে ৮ জিজ্ঞাসা করল,
“আমাকে মারলে কেন???”
৯ বলল আমি বড় তাই মেরেছি
এ কথা শুনে ৮, ৭- কে জোরে এক থাপ্পড় বসিয়ে দিল
৭ যখন ওকে মারার কারণ জানতে চাইল,
৮ ও বলল, “আমি বড় তাই মেরেছি”
একই অজুহাত দেখিয়ে,
এরপর ৭, ৬-কে
৬, ৫-কে
৫, ৪-কে
৪, ৩-কে
৩, ২-কে
আর ২, ১-কে মারল
হিসাব মত ১-এর শূণ্যকে মারা উচিত
কিন্তু “১” মারল না
মারা তো দূরের কথা
ও ভালোবেসে শূণ্যকে নিজের পাশে বসিয়ে নিল
দুজনে মিলে “১০” হল
তারা তখন ৯-এর থেকেও বেশী শক্তিশালী হয়ে গেল
তারপর থেকে “১০” কে সবাই সন্মান করতে শুরু করল
মোরালঃ ছোট ছোট কারণে নিজেদের মধ্যে ঝগড়া লড়াই না করে
ব্যক্তিগত অহঙ্কার দূরে সরিয়ে
আমরা যদি একে অন্যের হাতটা ধরতে পারি
আমাদের শক্তি বহুগুণ বেড়ে যাবে

– সাবিকুন নাহার মারিন

শাকিব ও অপু এর বিয়ে ও বাচ্চা নিয়ে সব শিরোনাম

* ‘তিস্তার জল ছাপিয়ে অপুর চোখে জল!’
– দৈনিক প্রথম আলু

* ‘অপুর কোলে সাকিবের বাচ্চা। আবার ও নিষিদ্ধ হতে যাচ্ছেন বিশ্বসেরা অল-রাউন্ডার সাকিব আল হাসান, বললেন বিসিবি বস পাপন।’
– দৈনিক কালারকন্ঠ

* ‘বোমা ফাটালেন অপু। অপু বললেন, শাকিব অনেক আগেই ফাটিয়েছেন।’
– দৈনিক তোমার দেশ

* ‘শাকিবের পুরুষত্ব নিয়ে সকল সংশয় উড়িয়ে দিলেন অপু।’
– দৈনিক মানবজমিন

* ‘শাকিবের বাচ্চা উৎপাদনের যোগ্যতা ছিল, মেডিকেল রিপোর্টে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।’
– দৈনিক পরকাল

* ‘অপুর চোখের কান্নায় আগামী কয়েকদিন ঢাকার আকাশে বৃষ্টি হবার সম্ভাবনা প্রবল!’
– দৈনিক যুগান্তর

* ‘শাকিব মজা নিলেন, সন্তান জন্ম দিলেন এবং অপুকে কাঁদালেন।’
– দৈনিক ইত্তেফাক

* ‘শাকিব একজন সিংহপুরুষ। স্বামীকে এমন উপাধি দিতে দ্বিধাবোধ করেননি স্ত্রী অপু ইসলাম।’
– দৈনিক খায়খায়দিন

* ‘অপু জানিয়েছেন সেদিন রাতে অনেক বৃষ্টি হচ্ছিলো। বাসায় খিচুড়ি রান্না হয়েছিলো!’
– দৈনিক পয়াদিগন্ত

* ‘শাকিবের মত ১০ টি টিপস নিলে আপনি ও দ্রুত বাবা হতে পারবেন যেভাবে’
– অসময়ের কন্ঠস্বর

এ জার্নি বাই মীরাক্কেল

mirakkel
বইমেলা প্রাঙ্গণে নিজের বই হাতে উচ্ছ্বসিত এমদাদুল হক হৃদয়। ছবিঃ যুবাইর বিন ইকবাল

বাংলাদেশ এর তরুণ মীরাক্কেল আক্কেল চ্যালেঞ্জার সিজন ৯ এর ফাইনালিস্ট এমদাদুল হক হৃদয় এ বছরের একুশে বই মেলায় প্রকাশ করেছেন “এ জার্নি বাই মীরাক্কেল” বইটি। মীরাক্কেল এর টিভি পর্দায় আমরা দেখেছি কিভাবে হৃদয় মজাদার কৌতুক আর হাস্যরস দিয়ে আমাদের মাতিয়ে রেখেছিলেন। আমরা দেখেছি কিভাবে তিনি একজন দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফুটিয়েছিলেন। কিন্তু পর্দার পেছনের গল্পগুলো কি আমরা জানি? নিঃসন্দেহে জানা নেই। হৃদয় এর মতে, পর্দার পেছনেও ঘটে থাকে এমন সব ঘটনা, এমন সব কান্ড যা কোন অংশেই কমেডি শো এর চেয়ে কম নয়।

Bangladeshi Wedding Photographer

তার মতে, পর্দার আড়ালের গল্পগুলো দিয়েও তৈরি করা যাবে মীরাক্কেল এর আরও একটি সিজন। তবে তাত আর সম্ভব নয়, আর তাই তিনি এবারের বই মেলায় পর্দার পেছনের গল্পগুলো নিয়ে প্রকাশ করেছেন “এ জার্নি বাই মীরাক্কেল।” মীরাক্কেলের অডিশন থেকে শুরু করে কোলকাতায় যাবার পর মীরাক্কেলের গ্রুমিং এর অভিজ্ঞতা নিয়ে লেখা আনাড়ী হাতের গল্প, গল্পের ফাকে ফাকে পাঠককে কাতুকুতু দিয়ে কিংবা অস্ত্রের মুখে হাসানোর প্রত্যয় নিয়ে সংযোজন করা কিছু ‘জোকস’, মীরাক্কেলের নবম সিজনে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্বকারী পার্ফরমার দের মীরাক্কেল এর জার্নি নিয়ে বলা কিছু কথা , আর লেখক এবং পাঠক – উভয়ের স্মৃতিবিজড়িত কিছু রঙ্গিন ছবি !!!

বই মেলায় সাহস পাবলিকেশন্স এর স্টলে ছিল এবং প্রকাশক এর মতে, তার স্টলে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হয়েছে এ বইটি।

ভক্তরা এসেছেন, কিনেছেন বইটি নিয়েছেন অটোগ্রাফ আর তুলেছেন সেলফি। এমনি একজন তরুণী আরশা জানিয়েছেন, তিনি নিয়মিত মীরাক্কেল দেখেন এবং তিনি এই মিরাক্কেল তারকার ভক্ত। আর তাকে এক নজরে দেখার জন্যই মেলায় এসেছেন। তিনি অত্যন্ত খুশি, হৃদয়ের অটোগ্রাফ সহ বই কিনতে পেরে। ভবিষ্যতে আরও কিছু বই নিয়ে আসতে চান পাঠকদের জন্য।

যারা বইটি কিনতে পারেন নি মেলা থেকে, তাদের জন্য www.rokomari.com থেকে রয়েছে কেনার সুজোগ, তাছাড়া বুনো পায়রা থেকে নিতে পারেন।

donald trump

ট্রাম্পের প্রথম দিনের কাল্পনিক ওভাল অফিস মিটিং

ট্রাম্পঃ আমাদের এক্ষনি ISIS কে ধ্বংস করা উচিৎ, এই মুহূর্তেই।
সিআইএঃ আমরা সেটা করতে পারবো না, স্যার। আমরা ISIS কে টার্কি, সৌদি, কাতার এবং আরও অনেককে সাথে নিয়ে একসাথে গড়ে তুলেছি।

ট্রাম্পঃ ডেমোক্র্যাটরা ওদের গড়ে তুলেছে।
সিআইএঃ না স্যার, আমরা (CIA) ওদের গড়ে তুলেছি। ISIS কে আমাদের খুব দরকার। নাহলে আমরা ন্যাচারাল গ্যাস লবি থেকে ফান্ডিং হারাবো।

ট্রাম্পঃ তাহলে পাকিস্তানকে ফান্ডিং করা বন্ধ করো। ওদেরকে নিয়ে ইন্ডিয়াকে ডিল করতে দাও।
সিআইএঃ সেটাও করা যাবেনা স্যার।

ট্রাম্পঃ কেন?
সিআইএঃ ইন্ডিয়া তাহলে বেলুচিস্থানকে পাকিস্থান থেকে আলাদা করে ফেলবে।

ট্রাম্পঃ করুক, আমার কিছু যায় আসে না।
সিআইএঃ তাহলে কাশ্মীরে শান্তি চলে আসবে। তারা আমাদের অস্ত্র কেনা বন্ধ করে দেবে। ইন্ডিয়া সুপারপাওয়ার হয়ে যাবে। ইন্ডিয়াকে কাশ্মীরে ব্যাস্ত রাখার জন্য আমাদের পাকিস্থানকে ফান্ডিং করে যেতেই হবে।

ট্রাম্পঃ ওকে ওকে, তাহলে তালিবানকে ধ্বংস করো।
সিআইএঃ স্যার, সেটাও করা পসিবল না। রাশিয়াকে ৮০’র দশকে চেক দিয়ে রাখতে আমরা তালিবানকে সৃষ্টি করেছিলাম। এখন তারা পাকিস্থানকে ব্যাস্ত রেখেছে।

ট্রাম্পঃ আমাদের তাহলে মিডিল ইস্টের যেসব সরকার টেরোরিস্টদের স্পন্সর করছে তাদেরকে ধ্বংস করা উচিৎ। সৌদিকে দিয়ে শুরু করা যাক, কি বলো?
সিআইএঃ স্যার সেটা আরও অসম্ভব। আমরা ওইসব সরকারকে ক্ষমতায় এনেছি কারণ তাদের তেল আমাদের দরকার। এসব সরকারকে ক্ষমতায় রাখতে হবে, নাহলে দেশগুলিতে ডেমোক্রেসি চলে আসবে। ডেমোক্রেসি চলে আসলে সর্বনাশ। তখন তাদের তেল সব তাদের নিজস্ব ব্যবসায়ীদের হাতে চলে যাবে। আমরা তেল হারাবো, স্যার।

ট্রাম্পঃ তাহলে চলো ইরান আক্রমণ করি।
সিআইএঃ সম্ভব না স্যার।
ট্রাম্পঃ কেন?
সিআইএঃ তাদের সাথে আমাদের আলোচনা চলছে।
ট্রাম্পঃ কিসের আলোচনা?
সিআইএঃ আমরা আগে তাদের স্টিলথ ড্রোনগুলি ফিরিয়ে আনতে চাই। আমরা যদি এক্ষনি তাদের আক্রমণ করি তাহলে রাশিয়া তাদেরকে সাহায্য করবে এবং আমাদের সৈন্যকে নিমেষে ধ্বংস করে ফেলবে; যেমন সিরিয়াতে করেছিলো। তাছারা ইসরাইলকে চেক দিয়ে রাখতে আমাদের ইরানকে দরকার আছে।

ট্রাম্পঃ তাহলে ইরাককেই আবার আক্রমণ করা যাক।
সিআইএঃ স্যার, আমাদের বন্ধুরা (ISIS) অলরেডি ইরাকের এক তৃতীয়াংশের দখল নিয়ে রেখেছে।
ট্রাম্পঃ পুরো ইরাক কেন নয়?
সিআইএঃ কারণ আমাদের ইরাকের শিয়া সরকারকে দরকার ISIS কে চেক দিয়ে রাখার জন্য।

ট্রাম্পঃ ওকে ওকে, কিন্তু আমি মুসলিমদের আমেরিকায় ঢোকা বন্ধ করতেছি।
সিআইএঃ স্যার, সেটা আপনি করতে পারবেন না।
ট্রাম্পঃ কেন?
সিআইএঃ তাহলে আমাদের দেশের স্থানীয় জনগণ বেশী সাহসী হয়ে যাবে, তাদের মনে কোন ভয় থাকবে না। তাদেরকে এত সাহসী হতে দেয়া যাবেনা, ভয়ে রাখতে হবে।

ট্রাম্পঃ আমি চাই সব অবৈধ ইমিগ্র্যান্টদের তাদের দেশে ফেরত পাঠিয়ে দেয়া হোক।
সিআইএঃ ওরা চলে গেলে আপনার ওয়াল কে বানাবে, স্যার? এতো কম মুল্যের শ্রমিক আর পাবেন কোথায়?

ট্রাম্পঃ তাহলে H1B ভিসাধারিদের অবৈধ করা হোক।
সিআইএঃ স্যার, সম্ভব না।
ট্র্যাম্পঃ কেন? কেন? কেন?
সিআইএঃ তাহলে আমাদের হোয়াইট হাউজের কাজগুলো পর্যন্তও ইন্ডিয়া থেকে কম মুল্যে আউটসোর্স করতে হবে।

ট্র্যাম্পঃ তাহলে আমি প্রেসিন্ডেন্ট হইলাম কি বালটা ফেলাইতে?
সিআইএঃ এঞ্জয় করুন স্যার, হোয়াইট হাউজ এঞ্জয় করুন। বাকিটা আমরা দেখতেছি।

-শাকিল মাহবুব

ফেসবুকে বিবাহ

wedding dairy
© Wedding Gallery

আমি সমস্ত ফেসবুকবাসীকে সাক্ষি রেখে তোমাকে বিবাহের প্রস্তাব করিতেছি দেন-মোহর হিসাবে তোমাকে দিতেছি কক এর ১০০০ একর জমি।

বিবাহ প্রস্তাব – Accept, Accept, Accept

সাক্ষিঃ Like , Like, Like

বাসর ঘর প্রাইভেসিঃ Only me + Tagged Wife

Ex Gf’s 1, 2, 3, ……. n: Block
Ex Bf’s 1, 2, 3, ……. n: Block

Ex Gf’s Conversation 1, 2, 3, ……. n: Clear Conversation
Ex Bf’s Conversation 1, 2, 3, ……. n: Clear Conversation

মুস্তাফিজ না খেলায় বাংলাদেশে আসছে ইংল্যান্ড

ইনজুরির কারনে খেলতে পারছেন না কাটার মাস্টার ও রহস্যময় বোলার মুস্তাফিজ। মুস্তাফিজকেই ইংলিশ দল প্রধান নিরাপত্তার হুমকি হিসাবে নিয়েছিল। কিন্তু যেহেতু তিনি খেলছেন না, তাই ার নিরাপত্তা নিয়ে কোন প্রশ্ন নেই। এর আগে অস্ট্রেলিয়াও একই কারণে খেলতে আসে নি।

তবে এমন মতামত শুধুই ক্রিকেটপাগল দেশীয় দর্শকদের দর্শকদের। তবে, ইংলিশ নাট্য অভিনেত্রী রাচ্যেল ভাইস তার ফেসবুক পাতায় এমনটাই লিখেছেন।

সুন্দরী আপুদের ফেইসবুক লাইভ সংক্রান্ত কয়েকটি টিপস

ফেসবুক এপস নতুন সংযোজন ফেসবুক লাইভ। আর সকলেই মেতে উঠেছে এ লাইভ নিয়ে। ছেলে-মেয়ে, কচি খোকা-পাকা বুড়ো সবাই। নাপিতের মেয়ে মালিহা থেকে শুরু করে চৌধুরী সাহেবের ছেলে, সকলেই। কে নেই আজ লাইভে!!! তবে যেনতেনভাবে লাইভে যাওয়াটা মোটেই উচিৎ নয়। এজন্য চাই বিশেষ আয়োজন। আর এজন্যই লাইভের বিশেষ ভাবে অজ্ঞ এস এম আমিনুল রুবেল দিয়েছেন কিছু টিপস। নুডলস এর জুস হাতে নিয়ে আপনিও আসুন লাইভে। তবে তার আগে

০১ – লাইভ যাওয়ার আগে মিনিমাম ৫ ঘন্টা সাজুগুজু করুন, কারণ লাইভ এডিট করা যায় না।
০২ – শুদ্ধ কথা আর দুই চারটা ইংলিশ আগেই প্র্যাকটিস করে নিন, নয়তো বা মাঝ পথে “প্যাকের মইদ্দে হাইন্দা যাইবেন কইলাম।”
০৩ – পিছন থেকে আপনার ভাঙা জানালায় শুকাতে দেয়া ছেড়া পেটিকোট আর লুঙ্গিটি সরিয়ে ফেলুন( এতো দিন তো ফার্স্ট ফুড ছাড়া চেক ইন দেননি)।
০৪ – চুল উড়ানোর জন্য ছোট ভাইকে সামনে থেকে হাত পাখা দিয়ে সমানে বাতাস করতে বলুন।
০৫ – শরীর সামনের দিকে ঝুকে বিশেষ অঙ্গ না দেখিয়ে অর্ধেক দেখান, নাহলে আপনার আসল ওজন সম্পর্কে মানুষ ধারণা পেয়ে যাবে।
০৬ – দুই পাশের চুল দিয়ে চেহারা হাফ ঢেকে রাখুন. নতুবা আপনার জাম্বুরার মতো গাল দেখা যাবে যেটা এতো দিন আপনার সেলফিতে ছিল না।
০৭ – হার্ট দুর্বল, এমন বন্ধু ফেইসবুকে থাকলে, তাদেরকে আগেই আনফ্রেন্ড করে দিন, কেউ হার্টফেইল করলে আপনি দায়ী থাকবেন না।
০৮ – আপনি ক্সজুনায়েদ না, কাজেই বার বার চুলে হাত দিবেন না।
০৯ – অতিরিক্ত ঢং করতে যাবেন না, ছেলেরা আড্ডায় সবচেয়ে বেশি পচায় ঢঙ্গি মেয়েদের।
১০ – মেকাপ দিয়ে লাইভ আসার আগে 5 মিনিট বাইরে গিয়ে ঘুরে আসুন, দেখুন আপনাকে আলিফ লায়লার ভুত মনে করে কেউ মূর্ছা গেলো কিনা। তাহলে চোখের মেকাপ একটু কমিয়ে ফেলুন।

রম্য রচনা – এস এম আমিনুল রুবেল

বঙ্গ বাহাদুর হত্যার দায় স্বীকার করল আই এস

ভারত থেকে আসা বঙ্গ বাহাদুর হাতিকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে। এ নির্মম হত্যাকান্ডের দায় স্বীকার করা হয়েছে আই এস। মৃত হাতিটির ডি এন এ নমুনা এফ বি আই কে পাঠানো হয়েছে। হাতি গবেষণা কেন্দ্রের মহা সচিব বেগম টুনটুনি জানিয়েছেন, আগামি ৩৬ ঘন্টার মধ্যেই হত্যাকারীদের ধরে আনা হবে।

জাতীয় হাতি রক্ষা কমিটির সভাপতি গজানন্দ আক্ষেপ করে বলেছেন, এটি হাতি বিরোধী দলের চক্রান্ত।

হাতি উন্নয়ন কেন্দ্রের প্রেসিডেন্ট পাখি চাঁদ এক সংবাদ সম্মেলন কেন্দ্রে বলেছেন, জারা হাতির উন্নয়ন চায় না, তারা হাতিটির বিচি ধরে নাড়াচাড়া করাতে হাতিটি অসুস্থ হয়ে পরে এবং ইহলোক ত্যাগ করেছে।

৮৫ সদস্যের একটি তদন্ত টিম গঠন করা হয়েছে। তাদেরকে আগামি ৪৮ ঘন্টার মাঝে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে।

-রম্য রচনা / যুবাইর বিন ইকবাল, প্রেস বাংলাদেশ

ভারত থেকে আসা মশা, ফিরিয়ে নিতে দশ সদস্যের টিম

ভারতের আসাম থেকে একটি মশা বাংলাদেশ সীমান্তে ঢুকে পরে। পরে এটি সাতক্ষীরা, মাগুরা ও বরগুনা ঘুরে বর্তমানে এটি দিনাজপুর এর ভোদামাড়া উপজেলার ধনকামড়া গ্রামে মোহর আলীর বাড়িতে অবস্থান করছে। এ মশার কামড়ে এখন পর্যন্ত বারজন আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে।

ভারত থেকে আসা মশা

এদিকে মশাটিকে ফিরিয়ে আনতে দিল্লি থেকে পাঁচজন ও মানালী থেকে পাঁচজন আগামী শনিবার বাংলাদেশে আসছেন। দশ সদস্যের এ টিমের সেনাপতি শ্রী মহেশ্বর কানপুরী রত্নাকর বিভূষণ বন্দ্যপাধ্যায় জানিয়েছেন, যদি কেও মশাটিকে ধরিয়ে দিতে পারে, তাকে ১২ টাকা টিপস দেয়া হবে। দশ সদস্যের এ টিমের প্রত্যেকে এক টাকা করে দিবে। পরে অতিরিক্ত দুই টাকা নিয়ে কোন্দল লেগে যায়। পরে সেনাপতি টিপসের টাকা কমিয়ে ১০ টাকা ঘোষণা করেন। এদিকে মশাটিকে মারতে দিনাজপুরের রাজবাড়ি থেকে কামান নিয়ে এসেছে হোসেন মিয়াঁ ও কুবের।

মশাটির নাম দেয়া হয়েছে “খুনিবন্ধু”

-যুবাইর বিন ইকবাল / রম্যরচনা / প্রেস বাংলাদেশ

Bangladeshi Wedding Photographer