আত্মা

আমি অন্ধকারে বিলীন হয়ে যাওয়া আত্মাদের সন্ধান করছি প্রতিদিন ওদের বীভৎস চিৎকার আমার ঘুম ভাঙায় তোমাদের ভয় নেই, একটু অপেক্ষা কর তোমাদের খোঁজ পেলেই – আলোর দেবতার কাছে পাঠিয়ে দেব অন্ধকারে থাকতে থাকতে – তোমাদের চেতনা মরে গেছে প্রাজ্ঞতার বিলুপ্তি ঘটেছে , বিস্ময়ের অন্ত হয়েছে – বোধের বড়ই অভাব দেখা দিয়েছে । আর একটু অপেক্ষা কর তোমাদের পোস্টমর্টেম করেই আলোর দেবতার কাছে পাঠিয়ে দেয়া হবে তারপর চেতনা , বোধ ও বিস্ময়ের আত্মাকে ফুঁকে দিয়ে ছেড়ে দেয়া হবে পৃথিবীর পথে । – হুমায়ুন কবির তালুকদার অন্যান্য সংবাদযদি পরীক্ষার ফলাফল…ক্ষুদার্ত মানুষদের…লোকাল বাস…

Read More

চন্দ্রলোকের রুপকথা

চাঁদের সাথে সূর্যের কি দেখা হয়েছে কখনো! প্রশ্ন জাগতেই,গ্রাস করে ধীবর নিমগ্নতা ভেসে উঠে চোখের তলায় জানা অজানা ভালবাসার কাহিনীগুলো,কিভাবে একাকিত্বের হাত ধরে প্রদক্ষিণ করে রাত গুনে গুনে চাঁদের বয়স বাড়ছে বেড়েছে স্বপ্নের ওজন, শুধু অতিক্রান্ত হয়নি, অতিক্রান্ত হয়নি সূর্যের সীমানা সূর্য কে ঘিরে যে প্রেমপুঞ্জ,চাঁদ তার খুব সন্নিকটে ধ্রুবকের মত দৃষ্টি, গভীর একাগ্রতায় ঠাঁই পেয়েছিল প্রেম, শুধু দেখার লোভে একটিবার স্পর্শের লোভে,কেমন হয় সেই অনাবিল মাধুর্যের স্নিগ্ধতা, ঝলসে গেছে চন্দ্রলোকের রুপকথা বিভাকরী আগুনে –জেনিফার স্মৃতি অন্যান্য সংবাদকবিতার প্রত্যাবর্তনশাকিরার জনপ্রিয়…অপরাধী ও আমাদের নিরবতামেয়েদের পর্ণ দেখার…বিশ্বমানের ডিজে হবার…মুক্তির প্রথম দিনে ১০০Powered…

Read More

প্রেমের নেতিকথা

নাদের যে কাদের হবে- কাদের বাসবে ভাল? কারাই বা ধরবে হাল- নাদেরের ভবিষ্যৎ দিন গুলো। কারও নাক সুন্দর তো কারও ঠোট, কারও চোখের দিকে তাকিয়েই নাদের খায় হোঁচট। কারও মুচকি হাসিতে টোল পড়ে, কেউ দিবারাত্রি টোল নিয়েই ঘুরে। কারও ছোট ধাপের চলন, কারও মিষ্টি গন্ধের ব্যাপন। কারও লম্বা কেশ কালো, নাদেরের লাগে ভাল। নাদের তবে কাদের হবে – কাদের বাসবে ভাল? কারা তবে রাখবে বহাল – নাদের বংশের আলো। ভাল লাগা গুলো বাসা বাঁধেনি, ভালবাসা নামক মরীচিকা নাদের খুজে পায়নি। দিন গেছে মাস গেছে চলে গেছে কয়েক বছর, প্রেমের ভুত…

Read More

পরাবাস্তব এই নির্জনতা

এপারে খড়খড়ে মাঠে একটা সবুজ ঘাস উদাস গরুকে খেয়ে ফেললো ওপারে পাহাড়টি বুঝল না সমতলের বিস্তীর্ণ রুক্ষ যন্ত্রণা নিয়ে চলা নদীটিকে ভাবনার দোটানায় একটা দুরন্ত ল্যাজঝোলা পাখির চোখা ঠোঁট থেকে খসে পড়ল আমিষসমৃদ্ধ একটি তারা যদিও প্রতিজ্ঞাবদ্ধ সবার চোখ এড়ানোর কথা ছিল তদুপরি পক্ষীশ্রেণী যথাযথ স্বভাবে বেসুরো উপহাসে ডেকে উঠল! নিয়মানুযায়ী তারাটির পয়সা হয়ে পড়ার কথা ছিল রহস্যনায়ক শিশুটির সব্যসাচী প্রবণতায়; বেমানান রসিকতায় ছোঁ মেরে পড়ন্ত বস্তুর হিসাব গড়বড়ে করে শূন্যে অস্থির ঝুলে রইল ফিঙে পাখির সাদা ছায়া! তখন শঙ্কাহীন শীতের মেঘে অযাচিত কুয়াশা এসে শিশিরের মত বুট ঠুকে শৈত্যপ্রবাহের…

Read More

কবিতার প্রত্যাবর্তন

সংক্রামিত এক একাকিত্তের প্রান্তে দাঁড়িয়ে! আপন আকাশের চাঁদ,এখন আর আমার নামে জোৎস্নার টিকিট বিলি করেনা, সুখস্বপ্ন বরাবরি বিপরীত মেরু মরীচিকার মত সরে সরে যায় আমার বন্ধু নীল,প্রশ্ন করেছিল কেন! জীবন নিয়ে খেলতে যাচ্ছ এলোমেলো অগোছালো খেলা? অল্প হেসে বলেছিলাম, বড়ই নেশাগ্রস্ত আমি! প্রেম আমার শিরায় শিরায় তুমি কি করে বুঝবে নীল যে মেঘ, থমথম করছে মাথার উপর কাল পর্যন্ত ছিল স্নিগ্ধ শিশির। আমি আজ চাঁদ চিনিনা,আর না জোৎস্না এক ছোট প্রদীপ জ্বেলে ঘরে, আপন জোনাকির অপেক্ষায় মাঝে মাঝে, কলম ফেলে নারী হয়ে উঠি দুমড়ে মুচড়ে যখন ভিতর টা বড়ই ক্লান্ত,…

Read More

ফাঁসির মঞ্চে রাজাকার

সেই ৭১’ এর মাতাল খুনী ফিসফিস করে কি যেন বলছে , হয়ত নতুন কোন ষড়যন্ত্র কিংবা বিষাক্ত ছোবলের প্রস্তুতি । ওই তো তারকাখচিত টুপিওয়ালা হাতে সেই মেরুন রক্তে মাখা ছোরা । সেই উন্মত্ত রক্তচোষা আজো প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ায় রাজপথে , বিপুল জনসভায় বক্তৃতা দেয় তুমুল করতালির মাঝে । কখনো সখনো ফুলেতে গলা যায় ডুবে এদের ভাবখানা এদেশের সেবা করতে পারলে জীবন হয় ধন্য । এত সহজে কি সব ভুলেছে বাঙ্গালী ! এত সহজে কি ঢেকে যাবে একটার পর একটা ইটের দেয়ালে গাঁথানো ইতিহাস ! তা কী করে হয় ! ‘৭১-এর…

Read More