দেশের সবচেয়ে বড় ঈদ এর জামাত দিনাজপুর

দিনাজপুর এর গোর এ শহিদ এ ময়দানে দেশের সবচেয়ে বড় জামাত হয়েছে। প্রায় তিন লক্ষ্য মানুষ এক সাথে নামাজ আদায় করেছে। দিনাজপুর এর সম্মানিত খতিব জনাব কাশেমী ইমামতি করেন।

এ বছর সাংসদ ইকবালুর রহিম এর অধীনে মাঠটি নতুন করে সাজানো হয়েছে।

ICC CHAMPIONS TROPHY

বাংলাদেশ আর পাকিস্তান চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনাল খেলবে – ওয়াসিম আকরাম

পাকিস্তানের লিজেন্ড পেস বোলার এবং কিং অফ সুইং “ওয়াসিম আকরাম” পি টি আই এর একটি সাক্ষাতকারে বলেছেন, তিনি বাংলাদেশ এবং পাকিস্তান এর ফাইনাল ম্যাচ দেখার আশায় টিভির সামনে অধীর আগ্রহে বসে আছেন। এই গতি তারকা আরও বলেছেন, বাংলাদেশ এ মুহুর্তের একটি দুর্দান্ত দল। তারা জানে কিভাবে প্রতিপক্ষকে তছনছ করে দিতে হয়, তারা জানে, কিভাবে জয় ছিনিয়ে আনতে হয়। এমনকি তিনি এটাও বলেছেন, বাংলাদেশ এর দলটা সামর্থ্য রয়েছে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জয়ের।

তিনি প্রশংসা করেছেন মাশরাফি’র অধিনায়কত্বের। মুস্তাফিজ প্রসঙ্গ এলে তিনি জানিয়েছেন, ফিজের মাঝে তিনি নিজেকে খুজে পেয়েছেন।

ICC CHAMPIONS TROPHY

চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে নিউজিল্যন্ড এর বিপক্ষে জয়ের পরে তারকাদের উচ্ছ্বাস

দুর্দান্ত ব্যাটিং করল বাংলাদেশ। দারুণ লড়াই করেছে সাকিব আর মাদমুদউল্লাহ।
কুমার সঙ্গকারা, ক্রিকেটার, শ্রীলঙ্কা

ওয়ান ডে ক্রিকেটে এ রকম ভাল পার্টনারশিপ আগে দেখেছি বলে মনে পড়ছে না।
মাইকেল ভন, ক্রিকেটার, ইংল্যান্ড

খুশিতে পাগল হয়ে যাবোরে!
আমব্রিন, উপস্থাপক

জিতেছি
চঞ্চল চৌধুরী, অভিনেতা

আমাকে দুইটা সেঞ্চুরি দাও। আমি একটা জয় উপহার দেই!
ঈশিকা খান, মডেল

This is called a TEAM!
আল মামনুন জামান, কমেডিয়ান

Number 1 Shakib Al Hasan
Vayra Mahmudullah
এস এম আমিনুল রুবেল, সিনেম্যাটোগ্রাফার

ধন্যবাদ বাংলাদেশ ক্রিকেট টিম, ধন্যবাদ সাকিব & মাহমদুল্লাহ
পিন্টো ঘোষ , গায়ক

It’s called Bangladesh ❤
Sakib
Mahamudullah rookzzzzzz
অন্তর রহমান, গায়ক

This is not a surprise, This is class.
যুবাইর বিন ইকবাল, ফটোগ্রাফার

বাঙালিদের ক্রিকেট প্রীতি প্রশংসনীয়। বাঙালি নারী পুরুষ উভয়েই এ খেলাটি পছন্দ করে। অন্য সকল বিষয় নিয়ে অহেতুক কাঁদা ছোড়াছুড়ি এবং তীব্র মতবিরোধ থাকলেও ক্রিকেট নিয়ে নেই। এটি বেশ আশা ব্যন্জক একটি ব্যাপার! তাই ভাবছি- যদি এ দেশের সবাই ক্রিকেট খেলতো তাহলে হয়তো আর ঝগড়া-বিবাদ থাকতো না !
শাওন চৌধুরী, গায়ক

ICC CHAMPIONS TROPHY

নিউজিল্যান্ডের জনৈক ক্রিকেটারকে তার পিতার চিঠি

আই সি সি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি ২০১৭ এর বাংলাদেশ বনাম নিউজিল্যান্ড এর খেলার পরে নিউজিল্যান্ড থেকে এক বাবা তার সন্তানকে পাঠিয়েছিল একটি চিটি। এ চিঠিটি পাঠকদের জন্য তুলে ধরেছেন ইশতিয়াক আহমেদ-

প্রিয় পুত্র,
কেমন আছো? খেলা দেখে যা বুঝলাম, ভালো নেই।
এতো কষ্ট করে একটা ডেইরি ফার্ম দিলাম। বললাম, এটার হাল ধরো। তুমি আমার কথা শুনলে না। তুমি শুনলে, এলাকার বড়ভাইদের কথা। হাল ধরলে ব্যাটের। মনে করেছিলে, অনেক কিছু করে ফেলবে। হলো তো? আমরা গরু পালি। রাখাল সম্প্রদায়। রাখালদের কখনও বাঘের কাছে যেতে নাই। ছোটবেলায় পড়িয়েছি। তুমি সেই ফাঁদে পা দিলে। এখন বাঘ খেয়ে দিলো তো?

লজ্জায় বাইরে যেতে পারছিনা। মুখ দেখাতে পারছিনা। কোনও ভিডিও কল রিসিভ করতে পারছিনা। তুমি খেলতে গেলে। গো হারা হারলে। অথচ বারান্দা থেকে দেখলাম, পাশের বাসার তোমার বয়সী জ্যাকসন দশ লিটার দুধ নিয়ে বাজারে গেলো বিক্রি করতে। আর কত বাঘের লেজ দিয়ে কান চুলকাবা বাবা?

দেশে আসো। কটনবাড কিনে রাখলাম।

তোমার পিতা
মিঃ এক্স

পোস্ট গ্রাজুয়েট ইন সাংবাদিকতা

বাংলাদেশ ছোট্ট একটি দেশ, কিন্তু এদেশে সংবাদপত্রের অভাব নেই, অভাব নেই টিভি চ্যানেল এর। আর প্রায় প্রতিদিনই কোন না কোন অনলাইন নিউজ পোর্টাল চালু হচ্ছে। কিন্তু দেশে যোগ্য সাংবাদিক কজন আছে? কজন আছেন, যিনি সাংবাদিকতায় পড়াশোনা করেছেন? আর এ কারণেই হয়ত –

: ভাই ঘটনা শুনছেন?
: হুম, বাংলাদেশ ৮ উইকেটে জিতছে
: আরে না ভাই, সেটা না…….
: তো কি? ২৮ জন সমকামী ধরা পড়ছে….
: ধুর, এসব না…..
: তো?
: কোন এক ডাক্তার আব্দুল্লাহ ভুল চিকিৎসা দিয়ে রোগী মেরে ফেলছে
: কোন আব্দুল্লাহ?
: বিএসএমইউ নাকি কোথাকার কি জানি….
: আচ্ছা যাই হোক, ভুল চিকিৎসা তুই কেমনে বুঝলি?
: কেন ভাই! অমুক পেপারে দেখছি…..
: ও, তাই…….!
: যাক ভাই। এসব বাদ দেন। আমার আম্মু কয়েকদিন ধরে অসুস্থ। কোন ডাক্তার দেখালে ভাল হবে?
: অমুক পত্রিকার অফিসে ফোন দেয়…..
: কেন ভাই? ওখানে ফোন দিয়ে কি হবে?
: ফোন দিয়ে জিজ্ঞেস কর, যে রিপোর্টার ‘ভুল চিকিৎসা’ বলে নিউজ করেছে সে কোথায় চেম্বার করে। একটা সিরিয়াল দিতে বল…..
: ভাই মজা নিচ্ছেন নাকি! ও তো সাংবাদিক। ও কেমনে চিকিৎসা দিবে?
: কেন? কিছুক্ষণ আগে তুই না বললি, ও আব্দুল্লাহ স্যারের চিকিৎসার ভুল ধরেছে। তাহলে সে নিশ্চয় মেডিকেল সাইন্স ডাক্তারদের চেয়ে ভাল জানে। নাহয়, দেশের সব ডাক্তার বলতেছে চিকিৎসা ভুল ছিল না, সেখানে সে কেমনে বলল চিকিৎসা ভুল? তোর মাকে ওর কাছে নিয়ে যা, ভাল চিকিৎসা পাবি!
: না ভাই……আসলে

ভারতে গো মাংস খাওয়ার কারণে মুসলিম মহিলাকে গণধর্ষণ করল হিন্দু সম্প্রদায়

এক নারীকে গণধর্ষণ করল হিন্দু সম্প্রদায় এর লোকজন। ভারত এর মেওয়াত এলাকায় এই লোমহর্ষক ঘটনাটি গটে। এর কারণ ঐ নারী গরু মাংস খেয়েছে। শুধু গণধর্ষণ করেই তারা ক্ষান্ত হয়নি। তার ১৪ বছরের ভাইকেও আহত করেছে। এ সময়ে তাদের বাচাতে এগিয়ে আসেন তার বৃদ্ধ চাচা। এতে ঐ নারীর চাচাকে হত্যা করে তারা। প্রথমে পুলিশ কোন মামলা নিতে চায় নি। পরে অন্যান্য মুসলিমদের চাপের মুখে যৌন হয়রানির মামলা দাখিল করতে চায়, কিন্তু শেষ পর্যন্ত ক্রমাগত চাপের মুখে হত্যা মামলা নেয় পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশ চারজনকে গ্রেফতার করেছে। এ বর্বর সংবাদটি প্রথমে প্রকাশ করে ব্রিটিশ পত্রিকা ইনডেপেনডেন্ট

India Map

এর আগেও ভারতে গো মাংস খাওয়ার কারণে অনেক মহিলাকে গণধর্ষণ করা হয়েছে। কিন্তু ভারতীয় প্রশাসন এ ব্যাপারে বরাবরই নীরব থেকে এসেছে। ভারতে গরুকে হিন্দু ধর্মের অনুসারীরা পুজা ও ভক্তি করেন। কিন্তু ইসলাম ধর্মমতে একজন মানুষ গোমাংস খেতেই পারে। ধর্মনিরপেক্ষ রাস্ট্র হিসাবে ভারতে সকল ধর্মের লোকজন এর সমান অধিকার রয়েছে নিজ নিজ ধর্ম পালন করার।

২০১৬ সালে পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি গো মাংস রপ্তানি করেছে ভারত। ভারত এর পরেই রয়েছে ব্রাজিল ও অস্ট্রেলিয়া। যে দেশে আইন করে গরু হত্যা নিষিদ্ধ করা হয়েছে, সেদেশ সবচেয়ে বেশি গোমাংস রপ্তানি করে, এমন বিচিত্র পরিসংখ্যান হয়ত খুব দুর্লভ।

১৫ দিনের প্রশিক্ষণে দক্ষ গেমস ডেভেলপার তৈরির উদ্যোগ! ব্যয় ২৮২ কোটি টাকা

পনের দিনের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সুদক্ষ মোবাইল গেমস ও অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপার তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়। আট হাজার সাতশ পঞ্চাশজন ডেভেলপার তৈরি এবং এক হাজার পঞ্চাশটি অ্যাপ্লিকেশন ও গেমস তৈরির জন্য দুই বছর মেয়াদী এই প্রকল্পের জন্য ব্যয় ধরা হয়েছে ২৮১ কোটি ৯৭ লাখ টাকা। তবে মাত্র পনের দিনের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে একজন ডেভেলপারকে কতটুকু দক্ষ করে তোলা সম্ভব তা নিয়ে প্রশ্ন করা হয়েছে বিভিন্ন মহল থেকে।

তথ্যপ্রযুক্তিবিদ ও সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এত কম সময়ে এটা কখনও সম্ভব নয়। এর আগেও সরকার ছয়শ মোবাইল অ্যাপস তৈরি করার পর রক্ষণাবেক্ষণ করতে পারেনি। প্রযুক্তিবিদ যুবাইর বলেছেন, সরকার এ উদ্যোগ খুবি ভাল, কিন্তু এর বাস্তবায়ন কতটুকু সম্ভব, তা একমাত্র সময় বলে দেবে। এই প্রকল্পের আওতায় অ্যাপসগুলো রাখার জন্য পঞ্চাশ লাখ টাকা দিয়ে একটি অ্যাপস্টোর তৈরির কথা বলা হয়েছে। তবে এর আগেও দেশীয় অ্যাপসস্টোর তৈরি করেছে সরকার, যেটি কোনো কাজেই আসেনি। এতে নতুন করে আবারও পঞ্চাশ লাখ টাকা ব্যয়ে স্টোর তৈরি বিলাসিতা ছাড়া আর কিছু নয় বলে মনে করছে দেশীয় তথ্য প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো।

টনি’র কিচেনে বৈশাখী মিলনমেলা ও বাংলা খাবারের মেলা

তিনি টনি খান, বাংলাদেশ এর সেরা শেফদেরই একজন। ধানমণ্ডি ২৭ এ রয়েছে তার স্বপ্নের কিচেন। প্রায় ৫ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত এ কিচেনে তিনি প্রায়ই আয়োজন করেন বিভিন্ন উৎসবের। বরাবরের মত এবারও আয়োজন করেছিলেন বৈশাখী মিলনমেলা। আর এখানে উপস্থিত হয়েছিলেন বাংলাদেশ এর স্বনামধন্য ফটোগ্রাফার যুবাইর বিন ইকবাল, সিগনেচার রেস্টুরেন্ট এর মালিক শাহাবুদ্দিন, বিখ্যাত নারী শেফ নাফিজ ইসলাম লিপি সহ আরও অনেকেই।

অথিতিদের বরণ করে নেয়ার জন্য ছিলেন TKCI এর প্রধান বিপণন অফিসার মাহবুব আমিন নাহিয়ান এবং TKCI এর ছাত্রীরা।

hilsha fish
TKCI এর ছাত্র ছাত্রীদের হাতে তৈরি করা ইলিশ মাছ এর ভাজি
ছবিঃ যুবাইর বিন ইকবাল

উৎসবে নিমন্ত্রিত অথিতিদের জন্য রান্না করেছিলেন শেফ টনি খান এর ছাত্র-ছাত্রীরা। অথিতিদের ওয়েলকাম ড্রিঙ্কস হিসাবে রাখা হয়েছিল কাঁচা আমের টক-মিস্টি শরবত। তারা তৈরি করেছিলেন মুখরোচক বাংলা খাবার। আর পরিবেশনায় ছিল আধুনিকতার ছোঁয়া। এ সকল খাবারের মাঝে ছিল পান্তা ভাত, ইলিশ মাছ, ডাল ভর্তা, আলু ভর্তা, বেগুন ভাজি, ডিম ভাজি, মুগের ডাল, মাছের কালিয়া, নানান ধরণের চাটনি ইত্যাদি। তৈরি করা হয়েছিল বিশেষ ধরণের স্বচ্ছ নকশী কেক।

বৈশাখী খাবার
TKCI এর ছাত্র ছাত্রীদের হাতে তৈরি করা ডাল ভর্তা
ছবিঃ যুবাইর বিন ইকবাল

এ ছাড়াও অথিতিদের মনোরঞ্জন করে টনি খান ব্যবস্থা করেছিলেন, বাউল গান।