best wedding photos
Wedding Gallery ||

বাংলাদেশ বনাম ইংল্যান্ড তৃতীয় ম্যাচ

ডি বি বি এল – রকেট সিরিজ ২০১৬ বাংলাদেশ বনাম ইংল্যান্ড তৃতীয় ম্যাচ

ভেন্যুঃ জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম, চট্টগ্রাম
তারিখঃ অক্টবর ১২, ২০১৬
সময়ঃ ১৪ঃ৩০ (বাংলাদেশ সময়)

টানা তিন বৃষ্টি হচ্ছে বন্দর নগরী চট্টগ্রামে। সেখানে ৩ নম্বর বিপদ সংকেত দেয়া হয়েছে আবহাওয়া অফিস থেকে। তবে এ স্টেডিয়ামের পানি নিষ্কাসন ব্যবস্থা অত্যন্ত আধুনিক। তাই ম্যাচের আগে বৃষ্টি না হলে সময়ে খেলা শুরু হবে। এ ম্যাচ নিয়ে প্রচন্ড আগ্রহ সকলেরই। ইতিমধ্যেই বিক্রি হয়ে গেছে ২২.০০০ টিকিটের সবগুলোই। প্রচুর মানুষকে খালি হাতে ফিরতে হয়েছে টিকিট না পেয়ে। ছুটির দিন হবার কারণেই দুটওর মধ্যেই পুরো স্টেডিয়াম কানায় কানায় ভরে যায়।

দর্শকদের আশা, বাংলাদেশ এ ম্যাচে জয় লাভ করবেই। তারা আনন্দ করতে করতে ফিরে যাবে সিরিজ নিয়ে। এ মাঠেই ২০১১ সালের ইংলিশদের হারিয়েছিল বাংলাদেশ। তাছাড়া দুদলের গত ৬ টি ম্যাচের ৪ টিতেই জয় পেয়েছে টাইগাররা।

বৃষ্টির কারণে টসে জয় লাভ করে ফিল্ডিং নিয়েছেন ইংলিশ অধিনায়ক জর্জ বাটলার। তবে খুব একটা সুবিধা করতে পারে নি তার বোলাররা। প্রচুর মিস ফিল্ডিং, ক্যাচ মিস এর প্রদর্শনী ছিল ইংলিশদের।

৫০ তম বারের মত ওপেনিং করতে নেমেছিলেন ইমরুল ও তামিম। ৮০ রানের পার্টনারশিপ করে দলকে এনে দিয়েছেন শুভ সূচনা।

ব্যাট করতে নেমে ৪৫ রানে ইমরুল ফিরে গেছেন। দুর্দান্ত ব্যাট করছিলেন তিনি। আদিল রশিদের স্পিনে বিভ্রান্ত হয়ে ফিরে গেছেন দারুণ ব্যাট করতে থাকা সাব্বির। তিনি করেছিলেন ৪৯ রান। রশিদের স্পিনে বিভ্রান্ত হয়ে ফিরে গেছেন এর আগে আগের ম্যাচের নীরব হিরো মাহমুদুল্লাহ।

অনেকদিন ধরেই রান পাচ্ছিলেন না মুশফিক। আজ করলেন অর্ধশতক, এবং করলেন এমন সময়ে, যখন দলের খুব প্রয়োজন। বিশাল এক ছয় মেয়ে পূর্ণ করেছেন নিজের ২৩ তম অর্ধশতক।

জয়ের জন্য ইংল্যান্ডকে করতে হবে ২৭৮। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে এর আগে সর্বোচ্চ রান তাড়া্ করার রেকর্ড–২২৬!! ২০১১ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষেই ২২৬ রান করে জিতেছিল বাংলাদেশ।

৫০০০ ক্লাবের সদস্য হলেন তামিম
৫০০০ রান পূর্ণ করলেন তামিম ইকবাল। ঘড়ের মাঠে দুর্দান্ত একটি বাউন্ডারি দিয়ে স্পর্শ করেন এ মাইল ফলক। চলতি সিরিজে খুব একটা রান করতে পারেন নি তামিম। প্রথম দু ম্যাচে করেছিলেন ১৭ ও ১৪। আজ রানে ফিরেছিলেন। দুর্দান্ত ব্যাট করছিলেন, হুক, পুল কি ছিল না তার ইনিংসে। কিন্তু ৪৫ রান করে আদিল রশিদের বলে ক্যাচ দিয়ে ফিরে গেছেন প্যাভিলিয়নে।

তবে শেষ পর্যন্ত ম্যাচটি হেরে গেল বাংলাদেশ নিজেদের বাজে ফিল্ডিং এর কাছে। কোনভাবেই ওদের সিঙ্গেল আটকাতে পারে নি। তাছাড়া বেশ কিছু ওভার থ্রো হয়েছে, যেখান থেকে অতিরিক্ত রান যোগ হয়েছে। ক্যাচ মিস হয়েছে কয়েকটি। যেগুলোর মাশুল দিতে হল, দু বছর পরে সিরিজ হেরে।

তবে আম্পায়ারিং নিয়ে ক্ষোভ রয়েছে দর্শকদের। বাংলাদেশের আম্পায়ার আনিসুর রহমান দুটি এল বি ডবলু আউট দেন নি। অথচ ঐ দুটি আউট ছিল, এর আগে আর একটি রিভিউ সফল হয় নি। তাই আর রিভিউও করতে পারছিল না।

বাংলাদেশ দল
তামিম ইকবাল
ইমরুল কায়েস
সাব্বির রহমান
মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ
মুশফিকুর রহিম
সাকিব আল হাসান
মোসাদ্দেক হোসাইন
নাসির হোসাইন
মাশরাফি (ক্যাপ্টেন)
তাসকিন আহমেদ
শফিউল ইসলাম

ইংল্যান্ড দল
বিলিংস
ভিন্স
বেন ডাকেট
বেয়ারস্ট
জর্জ বাটলার (ক্যাপ্টেন)
মঈন আলী
ক্রিস ওকস
আদিল রশীদ
প্লাঙ্কেট
জ্যাকব বল

সরাসরি সম্প্রচার
জিটিভি

লাইভ স্কোর
www.espncricinfo.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *