হাবিপ্রবিতে ছাত্রীর যৌন হয়রানি: ব্যবস্থা নেয়া হয়নি প্রমাণ থাকার পরেও

দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগ এর শিক্ষক দীপক কুমার সরকারের বিরুদ্ধে দুই ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগের সত্যতা প্রমাণের পরেও কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে দুই ছাত্রী ওই শিক্ষকের অশালীন প্রস্তাব প্রত্যাখান করে সোশ্যাল সায়েন্স অ্যান্ড হিউমিনিটিস অনুষদের ডিন ফাহিমা খানমের কাছে লিখিত অভিযোগ করেন। ফাহিমা খানম অভিযোগটি একই বছরের ২৬ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারকে অবহিত করলে কর্তৃপক্ষ ফাহিমা খানমকে চেয়ারম্যান করে পাঁচ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে। তদন্ত কমিটির সদস্য প্রক্টর এটিএম শফিকুল ইসলাম বলেন, “বিষয়টি তদন্ত করে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে এবং এ বছরের মার্চ মাসে তদন্ত প্রতিবেদন ও সুপারিশ কর্তৃপক্ষকের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।”

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার সাইফুল আলম বলেন, “আমি ১৯ মে এখানে যোগদান করেছি। ছাত্রীকে যৌন হয়রানির বিষয়টি শুনেছি, কিন্তু এ সংক্রান্ত কোনো ফাইল আমার কাছে নেই।”

কিন্তু তদন্ত প্রতিবেদন ধামাচাপা দেওয়ার আশঙ্কা করে হতাশায় ভুগছেন ওই দুই ছাত্রী। এ অভিযোগ ও তদন্ত বিষয়ে জানতে চাইলে অভিজুক্ত দীপক কুমার সরকার এবিষয়ে তার কোনো বক্তব্য নেই বলে জানান।

Related posts

Leave a Comment