স্বাধীনতার মঞ্চে উচ্চারিত হোক হোটেল ও পর্যটন শিল্পের জয়গান

“স্বাধীনতার মঞ্চে উচ্চারিত হোক হোটেল ও পর্যটন শিল্পের জয়গান” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে জাতীয় বিতর্ক সংগঠন বাংলাদেশ ডিবেট ওয়ারিওরস, ফেডেরেশন অব হস্পিটালিটি ট্যুরিসম এন্ড ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট এবং রিজেন্সি হস্পিটালিটি ট্রেনিং ইন্সটিটিউটের সার্বিক সহযোগিতায় গত ২৭-২৮ মার্চ, ২০১৭ ইং তারিখে আই ইউ বি এ টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে আয়োজন করে ২য় ন্যাশনাল বিজনেস জিনিয়াস বাংলাদেশ ২০১৭। উক্ত অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী, সংবর্ধনা অনুষ্ঠান এবং পুরস্কার বিতরণীতে বিভিন্ন স্বনামধন্য হোটেলিয়ার, পর্যটক, শিক্ষাবিদ ও মিডিয়া ব্যক্তিত্তের উপস্থিতি ছিল। তাছাড়া হোটেল ও পর্যটন বিষয়ক ক্যাম্পেইন, কর্মশালা, সেমিনার, ব্রিফিং সেশন, আলোচনা সভা, মাল্টিমিডিয়া প্রেজেনটেশন, প্রশ্ন উত্তর পর্ব, কুকিং, ফটোগ্রাফি, সিনেমাটোগ্রাফি, সেলফি, ওয়াল ম্যাগাজিন/চারুকলা, বিতর্ক ও ব্যবসায় শিক্ষা এবং সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা ও উৎসবে সারা দেশ থেকে সেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর উপস্থিতি তো ছিলই।

এ অনুষ্ঠানে বিচারকের ভুমিকায় ছিলেন, ফটোগ্রাফার যুবাইর বিন ইকবাল, আইনজীবী আল মামুন এবং রিজেন্সি হসপিটালিটি ট্রেইনিং ইন্সটিটিউটের প্রোগ্রাম কোঅর্ডিনেটর আব্দুল হালিম সরকার।

wedding photographer
বিচারক মন্ডলী
ছবিঃ শেখ রিয়াজ, ওয়েডীং গ্যালেরি

বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, নটরডেম কলেজ, আদমজী ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক কলেজ, জাগো, আকিজ ফাউনডেশন স্কুল ও কলেজ, হামদর্দ পাবলিক কলেজ, দি পিপলস ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ, ফারইস্ট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, উত্তরা গার্লস স্কুল এন্ড কলেজ বিজয়ী হবার গৌরব অর্জন করে। স্বনামধন্য ফটোগ্রাফার যুবাইর বিন ইকবালকে দেয়া হয়, এ বছরের শ্রেষ্ঠ ফটোগ্রাফার এর সম্মান। এছাড়া তিনি অনুষ্ঠানে তুলে ধরেন, ফটোগ্রাফি শিল্পের সাথে পর্যটন শিল্পের গভীর সম্পর্কে। তাছাড়া উক্ত অনুষ্ঠানের মিডিয়া পার্টনার দি হলি টাইম্‌স নিউজপেপার কে দেশের সেরা সংবাদপত্রের পুরস্কারে ভূষিত করা হয়। দি হলি টাইম্‌স নিউজপেপার এর পক্ষ থেকে পুরষ্কার টি গ্রহন করেন দি হলি টাইম্‌স নিউজপেপার এর হেড অব নিউস জনাব শ্যামল কান্তি নাথ।

Top photographer
স্বনামধন্য ফটোগ্রাফার যুবাইর বিন ইকবাল এর হাতে শ্রেষ্ঠ ফটোগ্রাফার এর ক্রেস্ট প্রদান করেন অনুষ্ঠান এর প্রধান অতিথি।
ছবিঃ শেখ রিয়াজ, ওয়েডীং গ্যালেরি

গুরুত্বপূর্ণ এ অনুষ্ঠানটির ফটোগ্রাফি এর দায়িত্ব পালন করে ওয়েডিং গ্যালেরি

jubair bin iqbal
এ মহতী অনুষ্ঠানের সভাপতি এবং বাংলাদেশ ডিবেট ওয়ারিওর্স এর প্রেসিডেন্ট জনাব মাহবুব আমিন নাহিয়ান এর ক্রেস্ট তুলে দিচ্ছেন, অনুষ্ঠান এর প্রধান অতিথি।
ছবিঃ শেখ রিয়াজ, ওয়েডীং গ্যালেরি
লিডারশীপ নিয়ে কথা বলছেন আইনজীবী আল মামুন রাসেল।
ছবিঃ যুবাইর বিন ইকবাল, ওয়েডিং গ্যালেরি

Bangladeshi Wedding Photographer

ভাইবার-ফেসবুক ভয়েস কল বন্ধের সিদ্ধান্ত প্রক্রিয়াধীন

ভাইবার, স্কাইপ, হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক, ইমোসহ বিভিন্ন এপস কিংবা সফটওয়্যার এর ভয়েস কল সুবিধা বন্ধের কোনো নীতিমালা হয়নি এখন পর্যন্ত, তবে এ বিষয়টি নিয়ে সরকার কাজ করছে। রাজধানীর রমনায় এক সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়টি জানিয়েছেন বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদ। তিনি বলেন, অন্যান্য দেশে তারা এ সকল এপস কিংবা সফটওয়্যার এর মাধ্যমে মেসেজ আদান প্রদান করেন, কিন্তু ভয়েস কল করেন না। আর এ সকল কল এর কারণে বৈধ কল এর উপরে বিরূপ প্রভাব পড়ে। তাছাড়া ইন্টেরনেট ব্যবহার করে এসকল কল করে সন্ত্রাসীরা সহজেই যোগাযোগ করতে পারে এবং এগুলো ট্রেস করা সম্ভব হয় না।

ঈদের সময়ে সড়ক দুর্ঘটনায় ১৬০ জন নিহত

ঈদের আগের ৩ দিন ও পরের ৩ দিন বিভিন্নস্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় মোট ১৬০ জন নিহত ও ৩৫০ জন আহত হবার সংবাদ পাওয়া গেছে। আহত বেশ কয়েকজনের অবস্থা আসনকাজনক। বেপরোয়াভাবে গাড়ি চালানো, ত্রুটিজুক্ত গারি ব্যবহার, ট্রাফিক সিগ্ন্যাল অমান্য ইত্যাদি কারণে এ দুর্ঘটনাগুলো হয়েছে বলে অভিমত পুলিশের।

ফারাক্কা খুলে দেয়ায় বাংলাদেশে পদ্মায় পানি বাড়ছে

বাংলাদেশের “বন্ধুপ্রতিম” দেশ ভারত, তাদের ফারাক্কা বাধ খুলে দিয়েছে। আর এতেই বৃদ্ধি পেয়েছে পদ্মা নদীর পানি। এ মুহুর্তে মানি বীপদ সীমা ছুই ছুই করছে। তবে পানির এ ধারা বাড়তে থাকলে তা আগামি ৩৬ ঘন্টার মাঝেই বীপদ সীমা অতিক্রম করে রাজশাহী শহরে পানি ঢুকে পরবে, এমনটাই আশঙ্কা পানি উন্নয়ন বোর্ড এর। পানি উন্নয়ন বোর্ড জানিয়েছে, প্রতি এক ঘন্টায় এক সেন্টিমিটার করে পানির উচ্চতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। তবে রাজশাহী শহর রক্ষা বাধ ভেঙ্গে জাবার মত পরিস্থিতি এখনও তৈরি হয় নি, বলে জানিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। পদ্মা নদীর প্রধান শাখা গড়াই নদেও পানি বাড়ছে। ইতিমধ্যেই পাবনা অঞ্চল পর্যন্ত নীচু এলাকাগুলো প্লাবিত হয়েছে।

Padma River
পদ্মা নদী

তবে সাধারণ মানুষ বেশ আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে। অনেকেই এলাকা ছেড়ে দূরে কোথাও আশ্রয় নিয়েছেন। সঙ্গে নিয়েছেন গবাদী পশু ও প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি।