ভারতে গো মাংস খাওয়ার কারণে মুসলিম মহিলাকে গণধর্ষণ করল হিন্দু সম্প্রদায়

এক নারীকে গণধর্ষণ করল হিন্দু সম্প্রদায় এর লোকজন। ভারত এর মেওয়াত এলাকায় এই লোমহর্ষক ঘটনাটি গটে। এর কারণ ঐ নারী গরু মাংস খেয়েছে। শুধু গণধর্ষণ করেই তারা ক্ষান্ত হয়নি। তার ১৪ বছরের ভাইকেও আহত করেছে। এ সময়ে তাদের বাচাতে এগিয়ে আসেন তার বৃদ্ধ চাচা। এতে ঐ নারীর চাচাকে হত্যা করে তারা। প্রথমে পুলিশ কোন মামলা নিতে চায় নি। পরে অন্যান্য মুসলিমদের চাপের মুখে যৌন হয়রানির মামলা দাখিল করতে চায়, কিন্তু শেষ পর্যন্ত ক্রমাগত চাপের মুখে হত্যা মামলা নেয় পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশ চারজনকে গ্রেফতার করেছে। এ বর্বর সংবাদটি প্রথমে প্রকাশ করে ব্রিটিশ পত্রিকা ইনডেপেনডেন্ট

India Map

এর আগেও ভারতে গো মাংস খাওয়ার কারণে অনেক মহিলাকে গণধর্ষণ করা হয়েছে। কিন্তু ভারতীয় প্রশাসন এ ব্যাপারে বরাবরই নীরব থেকে এসেছে। ভারতে গরুকে হিন্দু ধর্মের অনুসারীরা পুজা ও ভক্তি করেন। কিন্তু ইসলাম ধর্মমতে একজন মানুষ গোমাংস খেতেই পারে। ধর্মনিরপেক্ষ রাস্ট্র হিসাবে ভারতে সকল ধর্মের লোকজন এর সমান অধিকার রয়েছে নিজ নিজ ধর্ম পালন করার।

২০১৬ সালে পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি গো মাংস রপ্তানি করেছে ভারত। ভারত এর পরেই রয়েছে ব্রাজিল ও অস্ট্রেলিয়া। যে দেশে আইন করে গরু হত্যা নিষিদ্ধ করা হয়েছে, সেদেশ সবচেয়ে বেশি গোমাংস রপ্তানি করে, এমন বিচিত্র পরিসংখ্যান হয়ত খুব দুর্লভ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *