ভারতের সরকারের আমন্ত্রণে ভারতে বাংলাদেশের প্রতিনিধি দল

President of India
ভারতের সরকারের আমন্ত্রণে প্রেসিডেন্ট ভবনে বাংলাদেশের প্রতিনিধি দল

গিয়েছিলাম, ভারতের সরকারের আমন্ত্রণে বাংলাদেশের প্রতিনিধি হয়ে।

যাত্রা শুরু করি ৪ই ডিসেম্বর সকাল ৮টায়।৪টা রাজ্য ভ্রমণ করি পুলিশ প্রোটকল এ। দিল্লী -আগ্রা-গুজরাট-কলকাতা।১১তারিখ দেশে ফিরি। দেখেছি ও জেনেছি ভারতের ঐতিহ্য ও ইতিহাস। সবসময়ে সাথে ছিল পুলিশ প্রোটকল।

০৪ই ডিসেম্বরঃ দিল্লী মিউজিয়াম ও দিল্লী গেট
০৫ই ডিসেম্বরঃ রেড ফোর্ট, শাহী জামে মসজিদ, বিকেলে প্রেসিডেন্ট ভবনে আমন্ত্রণ, উপস্থিত ছিলেন যুব মন্ত্রি, প্রেসিডেন্ট ভবনে পেয়েছি ভিয়াইপি সংবর্ধনা। দুই দেশের ত্রুন্দের একসাথে কাজ করার আহবান জানান তিনি।
০৬ই ডিসেম্বরঃ আগ্রা গমন ও তাজমহল,আগ্রা ফোর্ট
০৭ই ডিসেম্বরঃ মহত্মা গান্ধির সমাধি, কুতুব মমিনার ও বিকেলে গুজড়াটের উদ্দেশ্য গমন
০৮ই ডিসেম্বরঃ গুজ্রাট ইঞ্জিয়ার ইউনিভারসিটি তে আমন্ত্রণ, সেখানে দুই দেশের সাংস্কৃতিক মিল বন্ধন হয়, আমরা আমাদের দেশের গান, নাচ, কবিতা পরিবেশনা করি, আমিও ছিলাম গানের দলে।
০৯ই ডিসেম্বরঃ মহত্মা গান্ধির আশ্রম ডান্ডি কুঠির এ যাই।
১০ই ডিসেম্বরঃ কলকাতা যাত্রা, ভিক্টোরিয়া পার্ক, ইডেন গার্ডেন ও হাওয়া ব্রিজ।
১১ই ডিসেম্বরঃ কবি গুরু রবি ঠাকুরের বাড়ি, জোড়াসাঁকো রাজবাড়ি দশন,মনে হচ্ছিল চোখের সামনে রবিঠাকুর কে দেখছি।

রাত এ দেশের উদ্দেশ্যে রওনা হই। পুরো টুরে প্রোটকল সহ রাষ্টিয় অথিতির মর্যাদা দেয়া হয়। স্বপ্নের মত ছিল এই ৮দিন। লাল -সবুজ, ভালোবাসার রঙ এর শাড়ি পরেছিলাম প্রেসিডেন্ট এর সাথে সাক্ষাত করতে।লাল-সবুজ আমার অহংকার। বিজয়ের মাসে নিজের দেশের প্রতিনিধি হয়ে যেতে পেরে আমি গর্বিত।

ভালোবাসার বাংলাদেশ। লাল-সবুজ আমার অহংকার।

খুব কড়া শাসনে বড় হয়েছি তাই,ঢাকার বাইরে পরিবার ছাড়া কখনওই যাওয়া হয়নি আমার। তাই এই টুর টা আমার জীবিন্স স্মরণীয়। যে মেয়ে বাড়ির বাইরে একা কোন্দিন পা রাখে নি সে গিয়েছে তার দেশের প্রতিনিধি হয়ে।

-বর্ষা
রেডিও প্রেসেন্টার
University of liberal Arts Bangladesh (ULAB)

কেবল বাংলাদেশই এশিয়ায় চতুর্থ ইনিংসে ৪০০+ করেছে

cricket ball

এশিয়ার মাটিতে চতুর্থ ইনিংসে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড বাংলাদেশের। ২০০৮ সালে শ্রিলঙ্কার বিপক্ষে ৪১৩ রান করেছিল। আশরাফুল করেছিলেন ১০১। তবে ম্যান অফ দা ম্যাচ পেয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। প্রথম ইনিংসে ২৬ রান করলেও পরের ইনিংসে করেন ৯৬ রান। আর প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেট ও পরের ইনিংসে ১টি উইকেট লাভ করেন।

চতুর্থ ইনিংসে আশরাফুল এর ১০১ এবং সাকিব এর ৯৬ রানই বাংলাদেশ দলকে এনে দিয়েছিল এ রেকর্ডটি। রেকর্ড গড়া এ ম্যাচটি অবশ্য শ্রীলঙ্কা জয় পেয়েছিল। ১০৭ রানে। আর এ জয়ের এছনে সবচেয়ে বড় অবদান ছিল মুরালিধরনের। ম্যাচে ১০ উইকেট ছিল।

এশিয়ার মাটিতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড পাকিস্তানের। শ্রীলঙ্কার মাটিতে তারা করেছিল ৩৮২। চতুর্থ ইনিংসে ইউনিস খান এর ১২২ রান করেন।

আর এ রেকর্ডটি বিশ্বের মাঝে ১২ নম্বরে রয়েছে। তালিকার প্রথমেই রয়েছে ইংল্যান্ড। ৬২৫ রান করেছিল দলটি ৫ উইকেটে। সাল ছিল ১৯৩৯ সাল। চতুর্থ ইনিংসে গিব ১২০, এনরিক ২১৯ এবং হ্যামন্ড ১৪০ করেছিল। ম্যাচটি হয়েছিল ডারবানে।

– সুত্রঃ ইএসপিএন

ব্যালন ডি অর পেলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো

২০১৬ সালে ব্যালন ডি অর পেলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। এ নিয়ে চতুর্থবারের মত লাভ করলেন, এ গৌরব। এ বছর তিনি ৫৫ ম্যাচে ৫১ টি গোল করেন, এবং ১৭ টি গোলে সহায়তা করেছেন। বিগত বছরগুলোর তুলনায় এ বছর তার গোল সংখ্যা অনেক কম। ২০০৮ সালে তিনি প্রথম এ সম্মান অর্জন করেন, এর পর ২০১৩ ও ২০১৪ সালেও তার হাতেই তুলে দেয়া হয়, এ সম্মান।

২০০৮ থেকে ২০১৬ ব্যালন ডি অর এর মুকুট কেবল মেসি ও রোনালদোই পেয়েছেন।

fifa ballon dor trophy

Cristiano Ronaldo

Google

SEO এর জন্য গুরুত্বপূর্ণ HTML ট্যাগ সমূহ

Search Engine Optimization (SEO) একটি ওয়েব সাইট এর জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপুর্ণ। কেন না, অধিকাংশ ভিজিটর Search Engine থেকেই আসবে।

SEO

Search Engine Optimization (SEO) এর জন্য HTML Tag এর তালিকা

title
<title> Wedding Gallery </title>
টাইটেল ট্যাগ গুগল, ইয়াহুসহ বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিনে সার্চ করার পরে প্রথমে দেখাবে। সাধারণত এ লেখা দেখেই একজন ভিজিটর, সাইট ভিজিট করে। এ ছাড়া অই ওয়েব পেজটি যখন ব্রাউজারে দেখা হয়, তখন ব্রাউজারের একদম উপরে তা প্রদর্শন করে। সার্চ ইঞ্জিন যখন কোন ওয়েব সাইট এর তথ্য ইন্ডেক্সিং করে, তখন সাধারণত টাইটেল ট্যাগ অনুযায়ী করে থাকে।

h1, h2, h3
<h1> JBI Gallery </h1>

b, strong
<strong> Press Bangladesh </strong>

anchor
<a href=”http://jbigallery.com/“>www.jbigallery.com</a>

alt
<img src=”jubair_bin_iqbal.jpg” alt=”Jubair” title=”Jubair” />

আমরা যখন সার্চ ইঞ্জিনে যখন কোন ছবি অনুসন্ধান করি, তখন যে ছবিগুলো আসে, তখন তা alt অনুযায়ী আসে, কেননা সাধারণত সার্চ ইঞ্জিন একটি ছবিকে চেনে, তার alt এর ভেতরে লেখা দেখেই।

ব্যান্ড ফেস্টিভ্যাল মাতালো মানব ব্যান্ড

Concert Photo
মানব ব্যান্ড এর লিড গিটারিস্ট তারেক হাসান

৭১ টি ব্যান্ডের ৭১ টি গান নিয়ে এ্যালবাম “আমাদের একাত্তর” প্রকাশ করেছে দূরবীন ব্যান্ড। এটিই পৃথিবীর সবচেয়ে বড় এ্যালবাম। আজ ২০ ডিসেম্বর ছিল, এই এ্যালবাম এর প্রথম বছরপুর্তী অনুষ্ঠান। আর এ কারণে তারা রাশিয়ান কালচারাল সেন্টারে আয়োজন করেছে ব্যান্ড ফেস্টিভ্যাল ২০১৬। প্রায় ২০ টি ব্যান্ড এতে গান করে। প্রায় সবার গানের সাথে সাথে দর্শক উল্লাসে ফেটে পড়ে। হৈ হুল্লোড় আর করতালির মাধ্যমে সকলেই তাদের গান শোনান।

তবে ব্যাতিক্রম ছিল, মানব ব্যান্ড। জনপ্রিয় এ ব্যান্ডটি ষ্টেজে ওঠার সাথে সাথেই দর্শকরা দাঁড়িয়ে যায় এবং স্টেজ এর সামনে ভীর করে এবং তাদের অসাধারণ গানের সাথে উদ্দামহীনভাবে উপভোগ করে। বিশেষ করে এ ব্যান্ডের লিড গিটারিস্ট তারেক হাসান এর অসাধারণ গিটার এর সুর এর যাদুতে দর্শকরা মাতোয়ারা হয়ে পড়ে।

Cricket

বি পি এল ২০১৬ চ্যাম্পিয়ন ঢাকা ডায়নামাইটস

অভিনন্দন ঢাকা ডায়নামাইটস

বি পি এল ২০১৬ এর চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ঢাকা ডায়নামাইটস। ফাইনাল ম্যাচে রাজশাহীকে ৫৬ রানের বড় ব্যবধানে পরাজিত করে। আর এ জয়ের ফলে প্রথম চার আসরের মাঝে মোট ৩ বার চ্যাম্পিয়ন হল। টস জয় লাভ করে রাজশাহী অধিনায়ক ঢাকাকে ব্যাটিং করতে পাঠায়। তাদের বোলাররা নিয়মিত বিরতিতে উইকেট নিতে পারলেও রানের গতি কখনই আটকে রাখতে পারে নি। আর এ কারণে ১৫৯ রানের লড়াকু সংগ্রহ এনে দেয় ঢাকার ব্যাটসম্যানরা। ঢাকা দলের লুইস করেন ৪৫ রান, মাত্র ৩১ বল খেলে।

ঢাকার বোলাররা দাড়াতেই দেয় নি রাজশাহীর ব্যাটসম্যানদের। ৫.৮৩ গড়ে রান তুলেছে। ১৭.৪ ওভারেই ১০৩ রানেই সমাপ্ত হয় তাদের ইনিংস। সাকিব দুটি উইকেট লাভ করেন। এ ছাড়াও জায়েদ ও সাঞ্জামুল দুটি করে উইকেট পান। রাজশাহীর মমিনুল করেন সর্বচ্চ ২৭ রান ৩০ বল খেলে। মাত্র ৩ জন ব্যাটসম্যান দু অঙ্ক স্পর্শ করেন। তাছাড়া আর কেউই কিছুই করতে পারে নি।

ম্যান অফ দা ম্যাচ হয়েছেন ঢাকা ডায়নামাইটস এর কুমার সাঙ্গাকারা। এর সিরিজ সেরা হয়েছেন মাহমুদুল্লাহ।

সান ফ্রান্সিস্কোর র‍্যাম্পে লাল সবুজ পতাকা

bangladesh flag
প্রিয় লাল সবুজ পতাকা হাতে নিয়ে র‍্যাম্পে হাটছেন ফাহিমা মাহজাবীন চৌধুরী

সান ফ্রান্সিস্কো, র‍্যাম্প, বাংলাদেশের পতাকা!!! এ তিনটি জিনিসকে এবার এক করে ফেলুন। কেমন যেন বিস্ময়কর লাগছে, তাই না? মেলানো যাচ্ছে না কিছুই। কিন্তু এবার এমনটাই হয়েছে। সান ফ্রান্সিস্কো স্টেট ইউনিভার্সিটির একটি র‍্যাম্পে বাংলাদেশের একজন কন্যা হেঁটেছেন, আর তার হাতে ছিল বাংলাদেশের গর্বের প্রতীক, লাল সবুজ পতাকা। আর এ কাজটি করেছেন ফাহিমা মাহজাবীন চৌধুরী। র‍্যাম্পের মূল উদ্দেশ্য ছিল, নারীর ক্ষমতায়ন। কিন্তু তিনি নারীর ক্ষমতায়ন এর সাথে সাথে নিজের দেশকেও তুলে ধরার চেষ্টা করেছেন, বিশ্বের সামনে।

ফাহিমা মাহজাবীন চৌধুরী পড়াশোনা করছেন সান ফ্রান্সিস্কো স্টেট ইউনিভার্সিটিতে। এর আগে তিনি United Nations Youth and Students Association of Bangladesh (UNYSAB) এর সদস্য ছিলেন।

ব্রাজিল ক্লাব ফুটবল দল বহনকারী বিমান বিধ্বস্ত

ব্রাজিল ক্লাব ফুটবল দল বহনকারী বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে কলম্বিয়া সীমান্ত এলাকায়। বিমানটিতে ৭২ জন যাত্রী ছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। দক্ষিন আমেরিকান ক্লাব কাপ এর ফাইনাল ম্যাচ খেলার জন্য বলিভিয়া থেকে বিমানটি যাত্রা করেছিল। ফাইনাল ম্যাচটি স্থগিত করা হয়েছে।

বিস্তারিত আসছে ….

brazil football team

অবশেষে বিচ্ছেদ করলেন সালমা

ছয় বছরের দাম্পত্য জীবন এর ইতি টানলেন ক্লোজআপ তারকা সালমা ও দিনাজপুর-৬ আসনের সাংসদ শিবলী সাদিক। দু পরিবারের লোকজন আলোচনার মাধ্যমে এ সিদ্ধান্তে আসেন। প্রায় ছয় বছর হয়ে গেছে তাদের দাম্পত্য জীবনের, এ সময়ের মাঝে একটি কন্যা সন্তানও হয়েছে, সন্তানের নাম স্নেহা। কিন্তু কখনই তাদের দাম্পত্য জীবনে সুখের ছোয়া আসে নি। দেন মোহোর এর বিশ লক্ষ টাকা এ সময়ে সালমা’কে বুঝিয়ে দেয়া হয়।

সালমা অভিযোগ করেছেন, শিবলী সাদিক তাকে পড়াশোনা করতে বাধা দিতেন এবং তার গান গাওয়া পছন্দ করতেন না। এমনকি গত চার বছর তাকে সেরকমভাবে কোন গানের সাথে যোগাযোগও রাখতে দেন নি। এমনকি শিবলী সাদিক তাকে তার বাবা মা’র সাথেও সম্পর্ক রাখতে দেয় নি। এরপর এ বছরের শুরুতে সালমা তার বাবা’র বাড়িতে চলে আসেন।

close up 1 salma

অবশ্য শিবলী সাদিক কোন অভিযোগ করেন নি। তাদের চার বছরের কন্যা সন্তান এখন বাবা’র কাছেই আছে।

বেশ কিছু জনপ্রিয় গান এর জন্ম দিয়েছেন এ শিল্পি। এর মাঝে উল্লেখযোগ্য বাংলাদেশ, কইলজার ভিতরে, বন্ধু তুই চলে গেলি ইত্যাদি।