তাহসান ও মিথীলার ডিভোর্স

তাহসান এবং মিথিলা’র সংসার ফাটল লেগেছিল বেশ কিছুদিন ধরেই। আর তাতে চূড়ান্ত ভাঙ্গন শেষ পর্যন্ত হয়ে গেল। আর এ কথাটি তাহসান নিজে জানিয়েছেন তার ফেসবুক স্ট্যাটাস এর মাধ্যমে। মুহুর্তেই হাজার হাজার ভক্ত এ খবরে বেশ মুষড়ে পরেছেন, কেননা তাদের দুজনের প্রেম, এ প্রেমের রসায়ন দেশের মানুষের কাছে ছিল উদাহরণস্বরূপ।

এ ঘটনায় বাংলাদেশ এর অন্যতম স্ট্যান্ডআপ কমেডিয়ান তারকা ও টিভি উপস্থাপক আল মামনুন জামান, বললেন, তিনি এ ঘটনায় অত্যন্ত মর্মাহত, তবে তাদের ব্যক্তিগত জীবনের প্রতি শুভকামনা জানিয়েছেন। খ্যাতিমান পরিচালক পান্থ রহমান প্রেস বাংলাদেশকে বলেছেন, তিনি আশা করেন এ ঘটনা তার দ্রুত ভুলে গিয়ে নিজেদের সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে এবং ভাল ভাল কাজ দেশবাসীকে উপহার দেবেন।

wedding dairy

তবে ব্যক্তিগত জীবনের বিষয়গুলো নিয়ে খুব বেশি কিছু জানান নি তিনি। তবে তাদের কন্যা সন্তান আয়রা তাহরীম খান এর ব্যাপারে তারা আগের মতই থাকবেন যেন তাদের সন্তান ভালভাবে বেড়ে ওঠেন।

তাহসান এর ফেসবুক স্ট্যাটাসঃ
It is with heavy hearts that we would like to jointly announce that we are getting divorced. After several months of trying to reconcile our differences, we have decided that we would rather go separate ways than be in a relationship out of social pressure. We realize that this probably comes as a shock to a lot of you and we wholeheartedly apologize about that.
We have always conducted our relationship with dignity and grace, and we hope that as we consciously uncouple and co-parent, we will be able to continue in the same manner.
We hope you will all treat us both with kindness during this difficult phase of our lives.
– Tahsan and Mithila

হলিউডে বাংলাদেশের নির্মাতা পান্থ রহমান এর সগর্ব পদচারনা

Director
পান্থ রহমান

ছেলেটা বেশ মেধাবী। পড়াশোনায়ও সেই ভাল। স্বপ্ন দেখতে দেশের শীর্ষ বিদ্যাপিঠ প্রাচ্যের অক্সফোর্ড ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়বেন। মেধাবী ছেলে, স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করা যার নেশা, তার জন্য এটা হতেই হবে। সুযোগও চলে এল। স্বপ্নের বিভাগ অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস এ পড়াশোনা শুরু হল।

তবে এর পাশা পাশি একটা নেশাও যে ছিল তার, আর তা হচ্ছে ক্যামেরা। একটা গ্রুপ, গ্রুপের সকলেই মিলে বিভিন্ন জায়গায় যেতেন তারা। দেশের গন্ডি পেরিয়ে আজকে কাশ্মীর কালকে নেপাল, আবার কখনওবা ভারত। অর্জন করলেন বেশ কিছু পুরস্কার। এ সময়ে ছবি তোলার পাশাপাশি প্রামাণ্য চিত্র এবং বিজ্ঞ্যাপনেরও কিছু কাজ শুরু করেছেন তিনি। এভাবেই পেরিয়ে গেল প্রায় দশ বছর।

এরপরে এল এক মহেন্দ্রক্ষণ। সুযোগ পেলেন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক ফিল্ম একাডেমিতে পড়াশোনা করার। দু বছর সেখানে কাটালেন। এ সময়ে তৈরি করেছেন বেশ কিছু ফিল্ম। অধিকাংশই স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র। এর মাঝে তিনি তৈরি করলেন তার মা আফরোজা পারভীন এর ছোট গল্প “লাশ” অবলম্বনে একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র “Deceased”। বার মিনিট এর এ স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রটি তৈরি করতে ব্যয় হয়েছে প্রায় দশ লক্ষ টাকা।কয়েকটি দৃশ্য হলিউড সুপার স্টার টম ক্রুজ এর বাড়িতে ধারণ করা হয়েছে। এ ছাড়া হলিউডে গ্রাম-বাংলার দৃশ্য তৈরি করাটাও ছিল একটা বিশাল চ্যালেঞ্জ। আর সে চ্যালঞ্জ তিনি অতিক্রম করেছেন খুব ভালভাবেই। শুট করেছেন RED ক্যামেরা দিয়ে।

Deceased
Deceased ফিল্ম এর একটি দৃশ্য

বাংলাদেশ, আমেরিকা, নেপাল, কানাডা ও নিউজিল্যান্ডে প্রদর্শিত হয়েছে স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র “Deceased।” এ ফিল্মের মাধ্যমে অর্জন করেছেন বেশ কয়েকটি পুরস্কার।

কালার ব্লাইন্ড স্টুডিওতে এক আড্ডায় তিনি দেখালেন, স্ক্রিপ্ট। একটা ফিল্মের জন্য কি পরিমাণ পরিশ্রম করেছেন, তা কেবল স্ক্রিপ্ট দেখলেই বোঝা গেল। বার মিনিটের এ ফিল্মের জন্য প্রায় ২৫০ পাতার ডকুমেন্ট তৈরি করা হয়ছে।

যখন তিনি জানতে পারলেন তার এ ফিল্মটি ওয়ার্নার ব্রাদার্সে প্রদর্শিত হবে, তখন তিনি বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছিলেন। এভাবে তার স্বপ্ন পুরণ হবে, হয়ত স্বপ্নেও কল্পনা করতে পারেন নি তিনি। স্বপ্নপূরণের অনুভূতিটা কেমন? পান্থ রহমানের ভাষায়, ‘ভয়ংকর!’ ছবির প্রদর্শনী দেখার পর তাঁর সহপাঠী, শিক্ষক এবং দর্শকদের প্রশংসাতে ভেসেছেন।

এখন তিনি ঢাকায় করেছেন নিজস্ব প্রোডাকশন হাউস। ব্যস্ত রয়েছেন নাটক ও টিভি সিরিয়াল নিয়ে। সেই সাথে তৈরি করছেন কয়েকটি ওয়েব সিরিজ। এবার ঈদ-উল-ফিতরে যে সকল নাটক তৈরি হয়েছে, তার মাঝে অন্যতম “ওপারে বসন্ত” এটির ডিওপি হিসাবে কাজ করেছেন।

নির্মাণাধীন ভবন থেকে ইট পরে ইউডা ছাত্র আখিদুল কোমায়

student
আখিদুল ইসলাম

ইউনিভার্সিটি অব ডেভেলপমেন্ট অলটারনেটিভের (ইউডা) চারুকলা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র মো. আখিদুল ইসলাম মোহাম্মদপুরে মোহাম্মদীয়া হাউজিং এলাকায় নির্মাণাধীন একটি ভবন এর সামনের রাস্তা দিয়ে হেটে যাবার সময়ে তার মাথায় একটি ইট পড়ে এবং ঘটনাস্থলে তিনি অজ্ঞ্যান হয়ে পরেন। এর পরে পথচারীরা তাকে দ্রুত পঙ্গু হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে তাকে নেয়া ঢাকা মেডিকেল কলেজে। এরপরে অস্ত্রপচারের জন্য তাকে নেয়া হয় স্কয়ার হাসপাতালে। অস্ত্রপচার শেষ করে তাকে আই সি ইউতে নেয়া হয়। তবে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তার অবস্থা সংকটাপন্ন এবং ৭২ ঘন্টা অতিবাহিত না হলে কিছুই বলা যাচ্ছে না।

ওই ভবনটি মোহাম্মদীয়া হাউজিংয়ের ৭ নম্বর রোডের ১/বি নম্বর বাসা। বাসার মালিক জানিয়েছেন বিয়ে এর প্যান্ডেল সাজানোর কাজ চলছিল এবং এ সময়ে অসতর্কভাবে একটি ইট নিচে পরে যায়। ভবন মালিক মোশাররফ হোসেন ও তাঁর ছেলেকে আটক করে থানায় আনা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আখিদুল এর ভগ্নিপতি প্রচ্ছদশিল্পী মোস্তাফিজ কারিগর মোহাম্মাদপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। মামলার প্রস্তুতি চলছে। আহত শিক্ষার্থীর স্বজনেরা দোষীদের শাস্তি ও উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন।

ইউটিউব জুড়ে প্রিয়াঙ্কা জামান এর জয়গান

Priyanka Zaman
প্রিয়াঙ্কা জামান

ঈদের দিনে মাই সাউন্ড বিডি প্রকাশ করেছে এক পলকে গান এর মিউজিক ভিডিও। এ গানটিতে গেয়েছেন নন্দিত গায়ক আরেফিন রূমি। বরাবরের মতও এ গানটিও পেয়েছে ব্যপক জনপ্রিয়তা। তবে দর্শকদের মতে, এ গানটি হিট হবার পেছনে সবচেয়ে বেশি অবদান অনিন্দ্য সুন্দরী এবং গ্ল্যামার কন্যা প্রিয়াঙ্কা জামান এর। সেরা নৃত্য শিল্পির পুরস্কার পেয়েছিলেন। আর এ মিউজিক ভিডিওতে সেটি বোঝা গেল, তিনি নাচে কতটা দক্ষ। গানটির মিউজিক ভিডিও অভিনয় করেছেন প্রিয়াঙ্কা জামান এবং রূমি নিজে।মিউজিক ভিডিওতে প্রিয়াঙ্কা জামান এর এটাই প্রথম কাজ। আর প্রথম কাজেই এতটা নন্দিত হবে, এটা তিনি নিজেও কল্পনা করতে পারেন নি। রোমান্টিক এ মিউজিক ভিডিওতে দুজনের রসায়ন ফুটে উঠেছে দুজনের অসাধারণ অভিনয়শৈলী এর মাধ্যমে। চমৎকার এ গানটি লিখেছেন রিপন। কোরিওগ্রাফি করেছেন হাবিব। মিউজিক ভিডিওতে লাইট এর ব্যবহার ছিল অসাধারণ। আর এ কাজটি খুব নিপুণভাবে করেছেন ইব্রাহিম শাহরিয়ার। গানটি পরিচালনা করেছেন শামছুল হুদা।

প্রিয়াঙ্কা জামান এর প্রশংশা করতে গিয়ে খ্যাতমান পরিচালক পান্থ রহমান বললেন, ওর মাঝে কি যেন একটা আছে, যেটার টানে একজন দর্শক ওর দিকে চোখ ফেরাতে বাধ্য।

ইউটিউবে গানটি প্রকাশ করার পর থেকেই এটি সকলের মাঝেই ছড়িয়ে পরে। ইতিমধ্যেই প্রায় কয়েক লক্ষ দর্শক এ গানটি দেখেছেন। গানটি কতটা জনপ্রিয়তা পেয়েছে, তা কেবল ইউটিউবে মন্তব্য দেখেই বোঝা যায়। নিচে কয়েকজন এর মন্তব্য প্রকাশ করা হল-

গানটি যতটা সুন্দর, তার চেয়েও অনেক বেশি সুন্দর গানের মিউজিক ভিডিও। আর প্রিয়াঙ্কা’র অভিনয় দুর্দান্ত।
-সুমাইয়া হোসাইন তামান্না

আরেফিন রুমিকে নতুন সাজে সুন্দর লাগছে, গানটা অনেক সুন্দর হয়েছে।
-হুমায়ুন কবির

রুমি অাসলেই প্রতিভাবান শিল্পী। কিন্তু মাঝখানে কিছু ভুলের জন্য নিজের ক্যারিয়ার খারাপের দিখে চলে গিয়েছিল, নতুন করে কিছু গান দর্শকের মন জয় করছে! অাশা করি নিজের ভুল বুঝতে পেরেছো, এভাবে গেয়ে যাও সাথে অাছি।
-শাদাত হোসাইন

বাংলাদেশ এর জন্য এশিয়ান কিডস কেয়ার ইন জাপান এর উপহার

এশিয়ান কিডস কেয়ার ইন জাপান
বাংলাদেশ এর বন্ধু রাষ্ট্র “জাপান (日本)” এর এন জি ও “এশিয়ান কিডস কেয়ার (愛媛県立しげのぶ特別支援学校) ” বাংলাদেশ এ পাঠিয়েছে বস্ত্র ও শিক্ষার উপকরণ। এ এন জি ও এর পরিচালক কাটসুয়া কিয়াসু (Katsuya Kiyasu) হাজী মোহাম্মাদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যানতত্ত্ব বিভাগ এর অধ্যাপক টি এম টি ইকবাল এর কাছে প্রেরণ করেন এ সকল উপহার সামগ্রী গরীব শিশুদের মাঝে বিতরণ করতে।

এরপরে অধ্যাপক টি এম টি ইকবাল এবং মাওলানা আবুল হোসেন এগুলো বিতরণ করেন দিনাজপুর এর চারটি স্কুল ও একটি এতিমখানায়। প্রায় ১৫০ জন শিশুদের মাঝে এ সকল উপহার বিতরণ করা হয়।

অধ্যাপক টি এম টি ইকবাল কাটসুয়া কিয়াসু এর নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এ ছাড়াও তিনি কৃষিবিদ সালমা সাদিয়া’র নিকটেও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন, কেন না মূলত তার মাধ্যমেই এশিয়ান কিডস কেয়ার ইন জাপান বাংলাদেশে এ উপহার পাঠান। সালমা সাদিয়া জানিয়েছেন, তিনি বাংলাদেশে এ ধরণের উপহার সামগ্রী আরও বেশি পরিমাণে পাঠানোর ব্যবস্থা করবেন।

এশিয়ান কিডস কেয়ার এশিয়া এবং আফ্রিকা’র বিভিন্ন দেশে নিয়মিত এ ধরণের উপহারসামগ্রী প্রেরণ করে থাকে।

সেড ফাউন্ডেশন সোনার বাংলা স্কুলে উপহার সামগ্রী বিতরণের সময়ে সেখানে উপস্থিত ছিলেন সেড ফাউন্ডেশন সোনার বাংলা স্কুলের চেয়ারম্যানের ও বাংলাদেশ আওয়ামী বাস্তুহারা লীগ রংপুর বিভাগীয় কমিটির সহ-সভাপতি এস এন আকাশ। তিনি কাটসুয়া কিয়াসুকে তার উপহারের জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

”Asian
”HSTU”
”TMT
”Jubair
”Japan”
”Jaica”
”Jaica”
”tmt
”salma
ছবিঃ যুবাইর বিন ইকবাল, যে বি আই গ্যালেরি

জাদুকরের জাদুতে মুগ্ধ শহরবাসী

Jadukor
জাদুকর এর একটি দৃশ্যে প্রিতম ও শাহতাজ

একের পর এক সুপার হিট গান উপহার দিয়ে যাচ্ছেন জনপ্রিয় তরুণ সঙ্গীত শিল্পি প্রিতম হাসানগাংচিল মিউজিক এর ব্যানারে এবারের উপহার জাদুকর। জাদুকর একটি মিউজিক্যাল গল্প। গানটি লিখেছেন রাকব হাসান রাহুল। কন্ঠ ও সুর করেছেন প্রিতম হাসান। ভিডিও পরিচালনা করেছেন তানিম রহমান অংশু। গানে মডেল হিসাবে ছিলেন প্রিতম, অনিন্দ্য সুন্দরী শাহতাজ মনিরা হাশেম, আনন্দ খালেদ এবং সুবহা।

আরব্য রজনীর এক জাদুকর তার গানের জাদুতে রাজকন্যার মন জয় করে তাকে বিমোহিত করে। এরপর রাজার আদেশে জাদুকরকে বন্দি করতে যায় রাজার প্রহরী আর এভাবেই এগিয়ে যায় এ গল্পটি। গানটিতে অসাধারণ অভিনয় করে দর্শকদের মন জয় করেছেন শাহতাজ মনিরা হাশেম ঠিক যেভাবে তার রূপের জাদুতে মুগ্ধ হয়েছিলেন জাদুকর।

জুন এর ২৫ তারিখে ইউটিউবে গানটি প্রকাশ করা হয়। লক্ষ লক্ষ মানুষ হুমড়ি খেয়ে পড়ে গানটি দেখতে। প্রথম দিনেই গানটি ৩ লক্ষ মানুষ দেখে। যা প্রিতম এর আগের গান লোকাল বাস এর চেয়েও তিনগুণ।

মিউজিক্যাল গল্পতে রয়েছে অসাধরণ গ্রাফিক্স এবং আলো এর ব্যবহার। আর অসাধারণ একটি সেটতো রয়েছে।

১২ মিনিট ৩০ সেকেন্ড এর মিউজিক্যাল গল্পটি দর্শকরা ধৈর্য্য নিয়ে দেখেছেন আর এ জন্য তিনি তার ভক্তদের নিকট চরম কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

মেরিল প্রথম আলো পুরষ্কার এর জন্য গানটি মনোনয়ন পেয়েছে সেরা গায়ক হিসেবে।

দর্শক প্রতিক্রিয়া
“টিপিকাল মিউজিক ভিডিও দেখতে দেখতে বিরক্ত ছিলাম। ধন্যবাদ প্রিতমকে নতুন কিছু উপহার দেয়ার জন্য। ভালো লাগলো”
-জুমন

ওহ মাই গড ওহ মাই গড ওহ মাই গড!!!!
এইটা বাংলাদেশের মিউজিক ভিডিও?? সিরিয়াসলি??
অংশু ভাই তো দেখি এই দেশের মিউজিক ভিডিওর নকশা পাল্টায়ে দিতেছেন!! আর প্রীতম হাসানের মিউজিক অভিনয় জাস্ট অসাম!! এই দুইজন মিলে ইদানিং কোন ঈদই খারাপ যেতে দেয় না!
আমাদের প্রিন্স অফ পার্সিয়া আমাদের “জাদুকর”
-তাউসিফ ফেরদৌস

“এই পর্যন্ত ৭ বার দেখলাম,
স্ক্রিপ্ট অনেক ভাল ছিল,দেখে কখনো মনে হয়নি দেশীয় কোন মিউজিক ভিড়িও! এক কথায় অসাধারণ।”
-আনাম রাহাত

মুগ্ধ…!!
এত সুন্দর মিউজিক ভিডিও বাংলাদেশে এই প্রথম, গল্প সুর কোরিওগ্রাফি সব আউটস্ট্যান্ডিং। মনটা খুব খারাপ ছিল কদিন ধরে বাট গানটা দেখে খুব ভাল হয়ে গেল। ভিন্ন কিছু করার চিন্তা থাকলে ভাল কিছু করা যায়। ধন্যাবাদ প্রিতম ও গাঙ্গচিল কে।।
-জিয়াউর রহমান

লিরিকস
তুই ভুল করে একবার
ভালোবেসে যা।
মন নিয়ে আমিতো
করিনা খেলা।

এই বোকার শহরে
আমি একা জাদুকর
এসেছি প্রেম ছড়াতে।

মনে এক রাশি প্রেম
হাতে হারমোনিয়াম,
ভেবো না বাঁশি হাতে
হ্যামিলনে ছিলাম।
এই বোকার শহরে
আমি একা জাদুকর
এসেছি প্রেম ছড়াতে।

যদি আজকেই তুই না দিস
দেখা এই মনের পাড়াতে।
তবে তুই ছাড়া পুরো শহর
আমার হবে।

বুঝতেও পারবিনারে
বশ করবো তুড়িতে,
সবক’টা পথ খোলা রবে
তবু পারবি না যেতে তুই।
পারবিনা যেতে তুই।

আঙুল নেড়ে সুর তুলে
জড়িয়ে ফেলি মায়াতে,
সবকটা পথ খুলে দেবো
তবু পারবেনা যেতে কেউ,
পারবেনা যেতে কেউ।

মোবাইল ফোন টিউন
গ্রামীণফোন: Type WT-space-5812911 and send to 4000
রবি: Type GET-space-5812911 and send to 8466
এয়ারটেল: Type CT-space-5812911 and send to 3123
টেলিটক: Type TT-space-5812911 and send to 5000
বাংলালিঙ্ক: Type down5871085 and send to 2222

এমদাদুল হক হৃদয় এর ফেসবুক পেজ এক লক্ষ ফ্যান এর মাইল ফলক

mirakkel akkel
এমদাদুল হক হৃদয়

স্ট্যান্ডআপ কমেডিয়ান এমদাদুল হক হৃদয় এর ফেসবুক পেজ এক লক্ষ ফ্যান এর মাইল ফলক স্পর্শ করেছে। যদিও বাস্তবে এ তারকার ভক্তের সংখ্যা আরও অনেক বেশি। মিরাক্কেল খ্যাত এ তারকা এ মাইলফলক অর্জন করে তার ভক্তদের নিকট প্রকাশ করেছেন কৃতজ্ঞতা। জানিয়েছেন ধন্যবাদ, তার সাথে থাকার জন্য।

তিনি জানিয়েছেন, তার ভক্তদের জন্যই তার বেচে থাকা, সামনে এগিয়ে যাওয়া। বর্তমানে তিনি ব্যস্ত রয়েছেন বিভিন্ন স্থানে স্টেজ পারফরম্যান্স নিয়ে, আর সেই সাথে রয়েছে টেলিভিশন চ্যানেলগুলোতে ব্যস্ত পদচারনা।

ফেসবুক পেজ লিঙ্কঃ www.facebook.com/emdadulhaquehridoyofficial

দেশের সবচেয়ে বড় ঈদ এর জামাত দিনাজপুর

দিনাজপুর এর গোর এ শহিদ এ ময়দানে দেশের সবচেয়ে বড় জামাত হয়েছে। প্রায় তিন লক্ষ্য মানুষ এক সাথে নামাজ আদায় করেছে। দিনাজপুর এর সম্মানিত খতিব জনাব কাশেমী ইমামতি করেন।

এ বছর সাংসদ ইকবালুর রহিম এর অধীনে মাঠটি নতুন করে সাজানো হয়েছে।